একাদশ জাতী সংসদ নির্বাচনে যুদ্ধাপরাধীরা লড়বে ধানের শীষ প্রতীকে

একাদশ জাতী সংসদ নির্বাচনে যুদ্ধাপরাধীরা লড়বে ধানের শীষ প্রতীকে

সেবা ডেস্ক: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৯৭১ এর মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধীদের পরিবারের বেশকজন সদস্য প্রার্থী হয়েছেন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি ও বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর মনোনয়নে তাদের অধিকাংশই ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে লড়তে চান।

গত বুধবার মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে সারাদেশে তিন হাজার ৬৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এদের মধ্যে অন্তত ছয়জন আছেন যাদের পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে দণ্ড দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এবং সুপ্রিম কোর্ট।

যুদ্ধাপরাধী আসামী দেলোয়ার হোসাইন সাঈদী, মতিউর রহমান নিজামী, সৈয়দ মো. কায়সার, আব্দুল আলীম, সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর পরিবারের একাধিক সদস্য নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এদের মধ্যে আব্দুল আলীম, কায়সার ও সাকা চৌধুরীর পরিবারের সদস্যরা সরাসরি বিএনপির রাজনীতিতে জড়িত থাকলেও নিজামী-সাঈদীর পরিবার জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।

তবে সাঈদীপুত্র বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি মহাসচিবের সাক্ষরিত প্রত্যয়নপত্রের মাধ্যমে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করছেন, আর নিজামীপুত্র স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

পিরোজপুর-১ আসনে শীর্ষ যুদ্ধাপরাধী দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীর পুত্র জামায়াতে ইসলামির নেতা শামীম সাঈদী বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ধানের শীষের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

পাবনা-১ (সাঁথিয়া-বেড়া) আসনে ফাঁসিতে দণ্ডিত শীর্ষ যুদ্ধাপরাধী মতিউর রহমান নিজামীর পুত্র জামায়াতে ইসলামির নেতা ব্যারিস্টার নাজিবুর রহমান মোমেন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) আসনে যুদ্ধাপরাধী সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর ভাই গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি। একই আসনে গিয়াসউদ্দিনের ছেলে সামির কাদের চৌধুরীকেও দলীয় মনোনয়নের চিঠি দিয়েছে দলটি।

জয়পুরহাট-১ (সদর ও পাঁচবিবি) আসনে যুদ্ধাপরাধী আব্দুল আলীমের পুত্র ফয়সল আলীম মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ফয়সল আলীম বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটি ও জেলা কমিটির জ্যেষ্ঠ সদস্য।

জিয়াউর রহমানের সময়ের বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি নেতা ও এরশাদ সরকারের কৃষি প্রতিমন্ত্রী যুদ্ধাপরাধী সৈয়দ মো. কায়সারের ভাই সৈয়দ মোহাম্মদ ফয়সল হবিগঞ্জ-৪ আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

জঙ্গি মদদ দাতাদের প্রাধান্য দেয়াতে অনেকের কপালে পড়েছে চিন্তার ভাচ। দেশে বর্তমানে জঙ্গি মুক্ত। কিন্তু বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি জঙ্গির মদদ দাতাদের মনোনয়ন দিয়ে আবার ভাবিয়ে তুলছে দেশের জনগণকে। অনেকেই আশঙ্কা করছে বিএনপি জঙ্গি মদদ দাতাদের মনোনয়ন দিয়ে আবার অন্ধকারের দিকে দেশকে ধাবিত করার জন্য এই ব্যবস্থা করেছে।

⇘সংবাদদাতা: সেবা ডেস্ক

, , ,

0 comments

Comments Please

themeforestthemeforest

ছবি কথা বলে