কুড়িগ্রাম জেলা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস সেবা সপ্তাহ ২০১৮ পালিত

Kurigram District Regional Passport Office Service Week 2018 is celebrated

ডা. জিএম ক্যাপ্টেন, কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামে “পাসপোর্ট নাগরিক অধিকার, নিঃস্বার্থ সেবাই অঙ্গীকার” এ স্লোগানে পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহ-২০১৮ আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুভ উদ্ধোধন করেন কুড়িগ্রাম অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. আশরাফুল ইসলাম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুড়িগ্রাম আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে উপ-সহকারী পরিচালক মোঃ আবুল হোসেন, সহকারী হিসাব রক্ষক রবীন্দ্রনাথ রায় সহ সকল অফিস স্টাফ সহ উপস্থিত ছিলেন পাসপোর্ট সেবা গ্রহীতাগণ, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কুড়িগ্রাম জেলা প্রেস ক্লাসের সিনিয়র সহ সভাপতি বিশিষ্ঠ সাংবাদিক ডা. জিএম ক্যাপ্টেন, সাংবাদিক গাজী মোহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম প্রমুখ।

গত কাল রবিবার কুড়িগ্রাম আঞ্চলিক পাসপোর্ট কার্যালয় প্রাঙ্গনে। উক্ত পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহ - ২০১৮ গত ৩ ফেব্রুয়ারী থেকে সপ্তাহ ব্যাপী চলবে। সরেজমিনে দেখা যায়, কুড়িগ্রাম আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস বর্ণাঢ্য সাজে সজ্জিত করা হয়েছে। জনসাধারণ সুবিধার্থে  তথ্য প্রদানের বিশেষ কাউন্টার স্থাপন করা হয়েছে।  এছাড়া ও পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহকে কেন্দ্র করে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

যার মধ্যে রয়েছে  গ্রাহককে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট সম্পর্কিত যেকোন তথ্য জানতে কিংবা এই সংশ্লিষ্ট সমস্যার সমাধান কিভাবে করা যায় তা সুষ্পষ্ট ব্যাখ্যা ও  ই- পাসপোর্ট সম্পর্কিত তথ্য দিচ্ছেন সহকারী হিসাব রক্ষক রবীন্দ্র নাথ রায় এবং পাসপোর্ট নিয়ে সাধারণ মানুষের বিভ্রান্তি দুর, সহজে পাসপোর্ট প্রদান ছাড়াও অন-লাইনে পাসপোর্টের আবেদন ফরম পূরণ, হার্ডকপি আবেদন ফরম পুরণ করে দেন নিজেই উপ-সহকারী পরিচালক, মো. আবুল হোসেন, যা গ্রাহক সতা সহায়ক। ফলে কুড়িগ্রাম আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের  ভাবমূর্তি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ফলে নাগরিকেরা সহজে পাসপোর্ট ফরম পূরণ ও পাসপোর্ট সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম সম্পর্কে কোন দালাল ছাড়াই আত্ম বিশ্বাসের সহিত করতে পারছেন। উল্লেখ্য কুড়িগ্রাম আঞ্চলিক পাসপোর্ট  উপ-সহকারী পরিচালক মোঃ আবুল হোসেন জানান চলতি বছরের জুলাই মাসেই বাংলাদেশে চালু হচ্ছে ই- পাসপোর্ট। জার্মানির  একটি কোম্পানীর সঙ্গে এরই মধ্যে এ বিষয় সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে এই পরিষেবা চালু হলে বাংলাদেশ  ঢুকবে নতুন যুগে। অত্যাধুনিক প্রযুক্তির এ পাসপোর্টের একটি ‘চিফ’ সহজ করে দেবে বিশ্ব ভ্রমণ। আমার জানা মতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ই-পাসপোর্টের নমুনা কপি  এছাড়াও আরো বলেন ২০/০৬/২০১৭ ইং  তারিখে কুড়িগ্রাম আমি যোগদান করেছি। যোগদান করার পরে এই অফিসে আগত জনসাধারণ ও পাসপোর্ট করতে আসা আবেদনকারীদের কোন ধরনের সমস্যা হচ্ছে না।

আমি সর্ব প্রথম দালালচক্র নির্মূলে অভিযান করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করায় আমার অফিসে  এখন কোন দালাল নেই। ফলে পাসপোর্ট করতে  প্রতারণার স্বীকার হওয়ার কোন দৃষ্টান্ত এখন আর নেই। ফলে দিন দিন পাসপোর্ট অফিসের শৃঙ্খলা ফিরে আসছে। জনগণের দ্বারগোড়ায় পাসপোর্ট সেবা পৌঁছে দেওয়া লক্ষ্যে এ ধারা অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ।

,