কোন আসনেই টিকতে পারলো না খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র

কোন আসনেই টিকতে পারলো না খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র

সেবা ডেস্ক: বগুড়া ৬ ও ৭ আসনেও বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিল করে দিয়েছেন বগুড়ার জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ফয়েজ আহাম্মদ। 

আজ ২ ডিসেম্বর রবিবার দুপুরে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় দণ্ডিত হওয়ায় আদালতের আদেশ অনুযায়ী উভয় আসনেই খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলের ঘোষণা দেন বগুড়া জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ফয়েজ আহাম্মদ।

এর আগে ফেনী-১ আসনেও তার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায়। ফলে তিনটি আসনেই মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আর প্রার্থিতা রইলো না খালেদা জিয়ার।

২ ডিসেম্বর রবিবার মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের দিনে সকালে ফেনী-১ আসনে প্রথম বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি চেয়ারপারসনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। দণ্ডিত ব্যক্তিরা জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না সম্প্রতি উচ্চ আদালতের দেওয়া এমন আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে তিনটি আসনেই মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায় খালেদা জিয়ার।

তবে এসব আসনে বেগম খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যেতে পারে এমন আশঙ্কা তার দল বিএনপির হাইকমান্ডের আগে থেকেই ছিল। এ কারণে এসব আসনে আগে থেকেই বিক্ল্প প্রার্থী দিয়ে রেখেছে দলটি। তন্মোধ্যে মধ্যে ফেনী-১ আসনে বেগম খালেদা জিয়ার বিকল্প হিসেবে ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) যুবদলের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলামের এবং বগুড়া-৬ আসনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নির্বাচন করার সম্ভাবনা রয়েছে।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় দণ্ডিত হয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে সাজা খাটছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। নিম্ন আদালত এ মামলায় তাকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিলেও দুর্নীতি দমন কমিশনের আবেদনে উচ্চ আদালত তার সাজা বাড়িয়ে ১০ বছর করেছে। এছাড়াও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলাতেও তার সাত বছরের কারাদণ্ড হয়েছে।
⇘সংবাদদাতা: সেবা ডেস্ক

,

0 comments

Comments Please

themeforestthemeforest

ছবি কথা বলে