রফতানিপণ্য বহুমুখীকরণে নির্মিত হবে প্রযুক্তিকেন্দ্র

রফতানিপণ্য বহুমুখীকরণে নির্মিত হবে প্রযুক্তিকেন্দ্র


সেবা ডেস্ক: দেশের রফতানিপণ্য বহুমুখীকরণে বৈচিত্র্য, মান ও উৎকর্ষ সাধনের জন্য যুগোপযোগী আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের উদ্যোগ নিয়েছে শেখ হাসিনার সরকার। এ উদ্দেশ্যে সাড়ে চারশ’ কোটি টাকা ব্যয়ে চারটি আন্তর্জাতিক মানের প্রযুক্তিকেন্দ্র নির্মাণ করা হবে।
বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চলের সম্মেলন কক্ষে বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফরউদ্দিন এ তথ্য জানিয়েছেন। অনুষ্ঠানে বেজার পক্ষ থেকে বাণিজ্য সচিবের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ১০ একর জমি হস্তান্তর করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এ প্রকল্পের সাড়ে চারশ’ কোটি টাকার মধ্যে বিশ্বব্যাংকের সহায়তা ৩১৮ কোটি টাকা এবং বাংলাদেশ সরকার ১৩২ কোটি টাকা ব্যয় করবে।

বাণিজ্য সচিব জাফরউদ্দিন বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ইসিফোরজে প্রকল্পের মাধ্যমে রফতানিপণ্য বহুমুখীকরণে বৈচিত্র্য, মান ও উৎকর্ষ সাধনের জন্য যুগোপযোগী আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের উদ্দেশ্যে চারটি টেকনোলজি সেন্টার নির্মাণ করতে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর, মিরশরাই, চট্টগ্রামে বিশ্বমানের টেকনোলজি সেন্টার নির্মাণের জন্য বেজার কাছ থেকে ১০ একর জমি বুঝে পাওয়া গেল। বঙ্গবন্ধু হাই-টেক সিটি কর্তৃপক্ষ ইসিফোরজে প্রকল্পের কাছে ৪ দশমিক ৪ একর জমি হস্তান্তর করেছে, বাকি দুটিরও জমিও পাওয়া যাবে।

তিনি বলেন, এ প্রকল্পের অধীনে, সাড়ে চারশ’ কোটি টাকা ব্যয়ে চারটি আন্তর্জাতিক মানের প্রযুক্তি কেন্দ্র নির্মাণ করা হবে। তৈরি পোশাক শিল্পের বাইরে আমাদের চারটি পণ্যে রফতানির সম্ভাবনা বেশি রয়েছে। এগুলো হলো- চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য, ফুটওয়্যার, প্লাস্টিক গুডস ও হাল্কা ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্য। 

বাণিজ্য সচিব আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের যে অভীষ্ট লক্ষ্য বৈশ্বিক উন্নয়ন এজেন্ডা ২০৩০, সরকারের ভিশন তথা ২০৩১ সালের মধ্যে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের মর্যাদা অর্জনে ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবো।

তিনি বলেন, এখানে আধুনিক সুবিধা সম্বলিত বিশ্বমানের এ টেকনোলজি সেন্টারে হালকা প্রকৌশল ও প্লাস্টিকস খাতসহ সংশ্লিষ্ট ম্যানুফ্যাকচারিং খাতের শিল্পসমূহের জন্য টেকসই প্রযুক্তিগত সেবা, যুগোপযোগী প্রশিক্ষণ, আন্তর্জাতিক বাজার সংক্রান্ত তথ্য সরবরাহ, প্রয়োজনীয় কারিগরি ও ব্যবসায়িক পরামর্শসেবা দেয়ার মাধ্যমে দেশীয় ক্ষুদ্র এবং মাঝারি শিল্পগুলোকে রফতানি সক্ষম করে তোলা হবে।

এছাড়া শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য সেন্টারগুলোতে থ্রি-ডি প্রিন্টিং ও ডিজাইন সেন্টার, টেস্টিং ও ক্যালিব্রেশন ল্যাব, ইন্ডাস্ট্রিয়াল অটোমেশন সেন্টার, টেকনোলজি ইনোভেশন ও ইনকিউবেশন সেন্টার, ওয়ার্কশপ, মেশিন-শপ, লাইব্রেরি ভবন ও বিজনেস সেন্টার সুবিধা থাকবে।

শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।