রৌমারীতে করোনায় আক্রান্তর বাড়িতে খাদ্য সরবরাহ

রৌমারীতে করোনায় আক্রান্তর বাড়িতে খাদ্য সরবরাহ



শফিকুল ইসলাম: করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করা হয়েছে। সোমবার (২৫ জুলাই) দুপুরের দিকে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা সংলগ্ন চাক্তাবাড়ি গ্রামে আব্দুল করিমের বাড়িতে এই খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করা হয়। সে রওশন আলীর ছেলে বলে জানা যায়। 
পরিবার সুত্রে জানা গেছে, আব্দুল করিম করোনায় আক্রান্ত হলে ১৭ জুলাই তার বাড়ি লকডাউন দেয় উপজেলা প্রশাসন। শুরু থেকে এখন পর্যন্ত ওই বাড়িতে উপজেলা প্রশাসন, রৌমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধির পক্ষ থেকে কোন প্রকার সহযোগীতা দেওয়া হয়নি।
করিম দীর্ঘদিন থেকে নদী, নালা, খাল, বিল থেকে মাছ ধরে বাজারে বিক্রি করে যা পায় তা দিয়ে চলত তার সংসার। লকডাউন দেওয়ার পর ৬ সদস্যের পরিবারটি মানবেতর জীবন যাপন করছেন। এলাকার একজন সচেতন ব্যক্তির মাধ্যমে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আফজাল হোসেন বিপ্লব বিষয়টি জানতে পারেন। সেই মুহুর্তে তিনি খাদ্য সামগ্রী  নিয়ে ছুটে যান আব্দুল করিমের বাড়িতে। খাদ্যের মধ্যে রয়েছে চাউল, মুরগী, মুসুর ডাল, লবন, চিনি, শুটকি, আদা, সোয়াবিন, সরিষার তেল, কাঁচা মরিচ, চাপাতি, লবঙ্গ, দারুচিনি, সাবান, হ্যান্ডওয়াস, আলু, পোটল, ঝিংগে,পিয়াজ, মাল্টা, লেবু ও নগদ অর্থ।
আফজাল হোসেন বিপ্লব জানান, আব্দুল করিমের বাড়ি লকডাউন দেয়ায় তারা মানবেতর জীবন যাপন করছে। আমি সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে সাধ্য মতো তাদের বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেই। আমার এই মানবতার সেবা অব্যাহত থাকবে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান বলেন, হাসপাতালে ভর্তি থাকলে সকলসেবা প্রদান করা হয়। তবে বাড়ি লকডাউন দেয় উপজেলা প্রশাসন এবং খাদ্য সামগ্রী দেওয়ার বিষয়টিও তাদের।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল ইমরান জানান, ওই পরিবারের পক্ষ থেকে যোগাযোগ না করায় খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়নি। তবে বিষয়টি আমি জানলাম এবং অতি তাড়াতাড়ি খাবার পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করবো।
 

শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।