নন্দীগ্রামে ঈদে মায়ের শাসনে অভিমান, ছেলের আত্মহত্যা

🕧Published on:

নন্দীগ্রামে ঈদে মায়ের শাসনে অভিমান, ছেলের আত্মহত্যা



 : বগুড়ার নন্দীগ্রামে ঈদের দিন মায়ের শাসনে অভিমান করে বিপ্লব হোসেন (১৮) নামের এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। 

সোমবার (১১ জুলাই) সকালে উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামে ঘর থেকে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মির্জাপুর গ্রামের হারেজ আলীর ছেলে বিপ্লব হোসেন পেশায় কৃষি শ্রমিক ছিলেন। 

পরিবার ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে নন্দীগ্রাম থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. আশরাফুল আলম জানান, ঈদের দিন বিপ্লবকে বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিতে নিষেধ করে তার মা। এনিয়ে ওইদিন সন্ধ্যার পর বাড়িতেও যুবককে শাসন করে। রাতে পরিবারের সবাই খাবার খেয়ে পৃথক ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। মায়ের উপর অভিমান করে গভীর রাতে সবার আজান্তে দরজা ভিতর থেকে বন্ধ করে শয়ন ঘরে গলায় রশি পেঁচিয়ে ফাঁস দেয় বিপ্লব। সকালে তার মা ডাকাডাকি করলেও বিপ্লবের সাড়া না পেয়ে দরজায় ধাক্কাতে থাকে। দরজা খুলে ঘরে ঢুকে ওই যুবকের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়। 



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।