প্রকৌশলীর ওপর হামলা ঘটনায় মুরাদের ১১ সমর্থকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা

🕧Published on:

 : সরিষাবাড়ীতে এমপির নামফলক সরিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নামফলক স্থাপন করায় মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র উদ্বোধনকালে প্রকল্প প্রকৌশলীর ওপর হামলা ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

প্রকৌশলীর ওপর হামলা ঘটনায় মুরাদের ১১ সমর্থকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা



 বুধবার (১৮ জানুয়ারী)  মধ্য রাতে প্রকৌশলী মাসুদুর রহমান জনি বাদী হয়ে সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ হাসানের প্রতিনিধি কাউন্সিলর সাখাওয়াতুল আলম মুকুলকে প্রধান আসামী করে ১১ জনের নাম উল্লেখ্য করে ৪০/৫০ জন অজ্ঞাতনামা বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।রাতেই পুলিশ মুন্না ও বেলালকে গ্রেফতার করে বুধবার সকালে জামালপুর কোর্টে প্রেরণ করেছে৷ 

 

এজাহার সুত্রে জানা যায়, মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ মোতাবেক মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র উদ্বোধনের জন্য সবধরনের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হয় । মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের সময় মুরাদ হাসান এমপির নামফলক ছিলো, উদ্বোধনের আগে সেটি সরিয়ে রাখা হয়। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ মোতাবেক প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনী নামফলক স্থাপন করা হয়। এমপির নামফলক না পাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান চলাকালে হঠাৎ এমপি মুরাদ হাসানের প্রতিনিধি সাখাওয়াতুল আলম মুকুল ও তার লোকজন অতর্কিত হামলা চালায়। মাসুদুর রহমান জনি সহ প্রকল্পের লোকজনকে বেধড়ক পিটিয়ে রাস্তা পর্যন্ত নিয়ে যান।পরে হামলাকারীরা তাদের তিনটি মোবাইল এবং মসজিদের সিসিটিভি ক্যামেরার হার্ডডিস্ক খুলে নিয়ে যান । এ সময় মডেল মসজিদ প্রকল্পের প্রকৌশলী মাসুদুর রহমান জনি (৩২), উপ-ঠিকাদার (সুপারভাইজার) মো. রকিব (৩০), ঠিকাদারের কর্মচারী ওসমান গণি বিপুল (২৮) ও সৌরভ (২৫) গুরুত্বর আহত হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। পরে মো. রকিব, ওসমান গণি বিপুলকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এদিকে ১৭ জানুয়ারি মঙ্গলবার রাতে মডেল মসজিদ প্রকল্পের প্রকৌশলী মাসুদুর রহমান জনি ১১ জনের নাম উল্লেখ্য ও ৪০ /৫০ জনকে আসামী করে সরিষাবাড়ী থানায় মামলা দায়ের করে।  আসামীরা হলেন - সাখাওয়াতুল আলম মুকুল, সুমন চাকলাদার, সোহেল মিয়া, দুর্জয়, হারুন, বাবু,মুন্না, আঃ কাদের, বেলাল, ইমরান,সুমন। মামলা নং-৯, তারিখ,১৮-১-২০২৩ ইং,ধারা- ১৪৩/৩৪২/১৪৮/৩২৩/৩২৫/৩০৭/৩৭৯/৫০৬/১১৪।  

 

সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ  মুহাম্মদ মহব্বত কবীর এ প্রতিবেদক মাসুদুর রহমানকে জানান, মসজিদ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সোমবার বিশৃঙ্খলা হয়েছিল, পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে । থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।এজাহারভুক্ত ২ জনকে রাতেই গ্রেফতার করা হয়েছে । বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। 


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।