ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্বাচন ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্বাচন ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্বাচন ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

Closing-ceremony-of-election-management-training-held-in-Brahmanbaria

গোলাম মোস্তফা রাঙ্গা: ৯ এপ্রিল সোমবার বিকাল ৪ টায় জেলা আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, সুহিলপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নবীনগর উপজেলার ৩দিন মেয়াদী ৪র্থ ধাপ উপজেলা আনসার কোম্পানি (পুরুষ) নির্বাচন ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান কালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান বলেন, “বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন নির্বাচনের জন্য ভোট কেন্দ্রে রিটার্নিং অফিসার নিয়োগ করেন, আর রিটার্নিং অফিসারকে সহযোগীতা করাই আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্য-সদস্যাদের গুরুত্বপুর্ন দায়িত্ব। “নির্বাচনে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী’র সদস্যগণ অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছেন”।


আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে দায়িত্ব পালনের লক্ষ্যে এই ১১৫ জন উপজেলা আনসার কোম্পানি (পুরুষ) নির্বাচন ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী ভাল একটি উদ্দ্যোগ গ্রহণ করেছেন।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর জেলা কমান্ড্যান্ট জনাব মো. মাহবুবুর রহমান (পিএএমএস)। জেলা কমান্ড্যান্ট ৪র্থ ধাপ উপজেলা আনসার কোম্পানী (পুরুষ) নির্বাচন ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষণের প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ্যে নির্বাচনে দায়িত্ব পালন সম্পর্কে বিভিন্ন দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য প্রদান করেন।


তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। উন্নত হচ্ছে দেশের মানুষের জীবন যাত্রা। বাংলাদেশের সম্মুখে উন্মোচিত হচ্ছে সম্ভাবনার নতুন নতুন দিগন্ত। দেশের তৃণমূল পর্যায় বিস্তৃত রয়েছে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর “ডিজিটাল বাংলাদেশ” গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী। তরুণ প্রজন্মের দেশ বাংলাদেশ। তরুণদের হাতেই এ দেশের ভবিষ্যৎ। কিন্তু দেশের উদীয়মান যুব সমাজের একটি বিচ্ছিন্ন অংশ আজ মাদকাসক্ত, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িয়ে পড়ছে। এ পরিস্থিতি হতে দেশের যুব সমাজ’কে রক্ষা করা জরুরী।


এ জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে মাদকাসক্তি, বাল্য বিবাহ, নারী নির্যাতন, ইভটিজিং সহ বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপ সংগঠিত হচ্ছে। আমাদের পারিবারিক ও সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয় হচ্ছে। এই সমস্ত সামাজিক অনাচার ও মূল্যবোধের অবক্ষয়ের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। আর এই আন্দোলন শুরু করতে হবে পরিবার থেকে। এ লক্ষে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীকে সচেতন করে তুলতে হবে। এই মহৎ কাজে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী‘র সদস্য-সদস্যারা ব্যাপক ভূমিকা রাখতে পারে।
একই সাথে এই বাহিনীর তৃণমূল পর্যায়ের সদস্য-সদস্যারা এই সমস্ত সামাজিক অনাচার এবং সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ বিরোধী তথ্য সরবরাহ করে তথ্য নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার মাধ্যমে সামাজিক অনাচার এবং সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদের মুলোৎপাটনে সক্ষম হবে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্য-সদস্যা‘কে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে।


অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরের উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মোঃ তারিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৩৩ আনসার ব্যাটালিয়ন, সুহিলপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বি কিউ এম মো. হারুনুর রশিদ, আশুগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মো. হানিফ মিয়া খাদেম। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরের উপজেলা আনসার ও ভিডিপি প্রশিক্ষক মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন।
প্রশিক্ষণটি ১২টি ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। নয়টি উপজেলা হতে ১০৩৫ জন পুরুষ সদস্য এবং ২৮৮ জন মহিলা সদস্যা প্রশিক্ষণে গ্রহণ করবেন।


,