উচ্ছেদ ও বাড়ি-ঘর ভাংচুর এর ন্যায় বিচার প্রত্যাশায় বল্লব দাস

"প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন হিন্দু পরিবার উচ্ছেদ ও বাড়ি-ঘর ভাংচুর এর ন্যায় বিচার প্রত্যাশায় বল্লব দাস"

In-the-hope-of-justice-and-vandalism-Vallabh-Das

রকি সাহা: চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলার ৩নং বিতারা ইউনিয়নের মাঝিগাছা নামক গ্রামের পরিবারসহ বাস করেন বল্লভ দাস। প্রভাবশালী ও ভূমিদস্যু মানিক মিয়া, ভল্লব দাসের বাড়ি ও ফসলী জমি দখলের উদ্দ্যেশ্যে নকল কাগজ পত্রের জালে ফাঁসিয়ে ঐ পরিবারকে উচ্ছেদ করে।

জানা যায়, গত ৪ এপ্রিল বুধবার দুপুরে একদল লোক হামলা চালায় ঐ পরিবারের উপর। বল্লভ দাসের স্ত্রী ও তার পুত্রবধূকে প্রথমে ধাক্কা দিয়ে ঘর থেকে বের করা হয় তারপর মানিক মিয়ার সন্ত্রাসী বাহিনী তার ঘর ভেঙ্গে ঘরের ছাউনি ও বেড়া পাশে অবস্থিত পুকুরে ফেলে দেয়। প্রায় ১০০বছরের পুরনো রাধা-কৃষ্ণ ও মনসা মন্দির ভেঙ্গে ফেলে। ঘরের সামনে লাগানো গাছগুলোও গোরা থেকে কেটে মন্দিরের পাশে অবস্থিত ডোবাতে ফেলে রেখে যায়। ঘরে রাখা স্বর্ণালঙ্কার সহ প্রায় ১০ লক্ষ্য টাকার মূল্যবান সামগ্রী লুটপাট করে নিয়ে যাওয়া হয়।


বল্লভ দাসের কৃষিজমিতে লাগানো ধানগাছ কেঁটে ফেলা হয়; পরবর্তীতে মানিক মিয়া হুমকি দেয়, কেউ যদি এই পরিবারের পাশে দাঁড়ায় তার বিরুদ্ধে হয়রানীমূলক মামলা করা হয়।


দরিদ্র হিন্দু পরিবারটি এখন প্রশাসনের প্রতিও নিরুৎসাহিত কারণ হামলার সময় পুলিশের উপস্থিতি ছিলো আর পুলিশ গ্রামের মানুষ কাউকে ঘটনাস্থলে প্রবেশ করতে দেয়নি এবং তাদের গুলি করার হুমকি দেওয়া হয়। পরিবারটি বর্তমানে নিঃস্ব। তারা এ বিষয়ে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করছে।

এলাকাবাসীর দাবী শীঘ্রই যেন ভূমিদস্যু মানিক মিয়াকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করা হয় এবং অসহায় পরিবারটিকে ক্ষতিপূরণ প্রদান করা হয়।



, , ,
themeforestthemeforest