বেলকুচিতে মিষ্টির কেজিতে ৮শ গ্রাম

বেলকুচিতে মিষ্টির কেজিতে ৮শ গ্রাম
জহুরুল ইসলাম, বেলকুচি প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে বেশ কয়েকটি সনামধন্য মিষ্টান্ন ভান্ডার থাকার কারনে এ অঞ্চলের মিষ্টির ব্যাপক পরিচিত ঘটেছে। তাই দিন দিন বেড়েই চলছে এখানকার মিষ্টির চাহিদা। 

তবে এসব মিষ্টির দোকানে মূল্য তালিকা টাঙানো থাকলেও ওজনে কম দেওয়ার প্রায়ই অভিযোগ পাওয়া যায়। তেমনি অভিযোগ পাওয়া গেছে বেলকুচি মুসলিম সুইটস নামক একটি মিষ্টান্ন ভান্ডারের বিরুদ্ধে।

ভুক্তভোগী আল মাহমুদ জানান, তামাই বাজারে আমার ভাই আল আমিনের তাঁতের সরঞ্জামাদির দোকানে হালখাত উপলক্ষে মুসলিম সুইটসে ১৮০ কেজি মিষ্টি অডার দেই। যা প্যাকেট আকারে ১ কেজি করতে বলি। গত শুক্রবার হালখাতার জন্য মিষ্টি আনলে প্যাকেট দেখে সন্দেহ হলে ওজন করে দেখি প্রতি প্যাকেটে ৮ শ গ্রাম করে দেওয়া আছে।তাতে গড়ে ১৮০ কেজি মিষ্টির মধ্যে ৩৬ কেজি মিষ্টির কম পাওয়া যায়। 

মিষ্টি কম দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে দোকান মালিক আফজাল হোসেন তালবাহানা করেন। পড়ে বিষয়টি জানাজানি হলে তিনি তোপের মুখে পড়ে আমাকে বাকী টাকা ফেরত দেয়। তিনি আরও বলেন, আমাকে যদি সে ১৮০ কেজি মিষ্টির মধ্যে ৩৬ কেজি কম দিতে পারে, না জানি তিনি এভাবে আরও কত মানুষকে মিষ্টি বিক্রির নামে ঠকিয়ে আসছেন।

অপরদিকে মুসলিম সুইটসের স্বর্তাধিকার আফজাল হোসেন জানান, আমি দুইটা দোকানের হালখাতার জন্য মিষ্টির অডার পাই যা একজনের প্যাকেট হবার কথা ছিল ৮শ গ্রাম করে অপর জনের ১কেজি করে। কিন্তু কর্মচারীদের ভূলের কারনে এলোমেলো হয়ে যায়। তবে আমি ইচ্ছা করে এই কাজ করিনি।

⇘সংবাদদাতা: জহুরুল ইসলাম

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Comments Please