মেলান্দহে কুরবানি পশুর চামড়ার দুর্গতি

Melandahe skin affliction of cattle
জামালপুর সংবাদদাতা : এবারের পবিত্র ঈদুল আজহার কোরবানি পশুর চামড়ার দুর্গতি দেখা দিয়েছে। অন্যান্য ঈদে কোরবানি পশুর চামড়া কেনার জন্য গ্রামে-গঞ্জে ক্রেতার সমাগম ছিল। এবার কোন কোন এলাকা ছিল ক্রেতা শুন্য। কোরবানি দাতারা পশুর চামড়া বিক্রি করতে নাপারায় হতদরিদ্ররাও বঞ্চিত হয়েছেন। বিভিন্ন এলাকায় খবর নিয়ে জানা গেছে, প্রতিটি কোরবানীকৃত ছাগল-ভেড়ার চামড়া মুল্য ১০/২০ এবং প্রতিটি গরুর চামড়া ১০০/২০০ টাকা বা তারও বিক্রি করা ছিল দুস্কর।
কুরবানী দাতা রফিকুল ইসলাম জানান-এবার কোরবানী পশু চামড়ার ক্রেতা নেই। পথ খরচসহ দুইজন ফকিরকে চামড়া দিতে গেছি। ফকিরও তা গ্রহণ নাকরায় এতিম খানায় দিয়েছি। কফিল মন্ডল জানান-ঈদের দিন ক্রেতা নাপেয়ে পরদিন কোরবানী পশুর চামড়া এতিম খানায় দিলাম।
মুসলমানদের ধর্মীয় প্রাচীন প্রথা অনুযায়ী কোরবানী পশুর চামড়া এতিম খানা, কওমী মাদ্রাসা এবং গরিব-দুখিদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। অন্যান্য বছরের ন্যায় এবার ক্রেতা নাথাকায় এ সব ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান সংগৃহিত কোরবানী পশুর চামড়া নিয়ে বিপাকে পড়েছে।
চামড়া সংগ্রহকারিদের বৃহৎ প্রতিষ্ঠান জামেয়া হুছাইনিয়া কওমী মাদ্রাসা ও এতিম খানার সুপারিটেন্ডেন্ট আলহাজ মুফতী শামসুদ্দিন জানান-কোরবানিদাতারা কিছু চামড়া এতিম খানায় দান করেছেন। গরিব ছাত্রদের খাদ্য-পানীয় এবং লেখাপাড়ার খরচ যোগাতে কিছু চামড়া কেনা হয়েছিল। ক্রেতা নাথাকায় ট্রাকভর্তি চামড়াগুলো দুর্গন্ধ ছড়াতে শুরু করেছে। উপায়ন্তর নাপেয়ে মাটিতে পুঁতে রাখতে হয়েছে। এতে চামড়া সংগ্রহ এবং পুঁতে রাখার খরচটাই অপচয় হলো।
খাদিজাতুল কুবরা (রা) মহিলা মাদ্রাসা ও এতিম খানার তত্ত¡াবধায়ক মাও.  রহমতুল্লাহ জানান-এতিম খানার জন্য চামড়া নিয়ে বিপাকে পড়েছি। ৩টি গরুর চামড়া ১শ’ টাকা গাড়ি ভাড়া দিয়ে বাজারে নিয়ে তড়িগড়ি করে ৪শ’ টাকায় বিক্রি করেছি।
এ ব্যাপারে এশিয়া ছিন্নমূল মানবাধিকার বাস্তবায়ন ফাউন্ডেশন এবং বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার স্থানীয় শাখার যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেট মঞ্জুরুল কবির ও এডভোকেট আলতাফুর রহমান জানান-কোরবানীর পশুর চামড়া বিক্রির অর্থ দারিদ্র বিমোচনের সহায়ক ভ‚মিকা রাখে। চামড়া শিল্পে বাংলাদেশের কোরবানি পশুর চাহিদাও বেশি। এই শিল্প ধ্বংশের কোন নীল নকশা বা ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট কিনা তার সরকারকে খতিয়ে দেখার অনুরোধ করেছেন।

 -সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Comments Please