হিজড়াদের অত্যচারে অতিষ্ঠ চুনারুঘাট উপজেলাবাসী

হিজড়াদের অত্যচারে অতিষ্ঠ চুনারুঘাট উপজেলাবাসী
সেবা ডেস্ক: চুনারুঘাট উপজেলার বিভিন্ন স্থানে হিজড়াদের দৌরাত্ম আর চাঁদাবাজি ও অত্যচারে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।বেশ কিছুদিন হয় উপজেলা জুড়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে হিজড়া বাহিনী।বিভিন্ন ভাবে বিভক্ত হয়ে গ্রাম -মহল্লা এলাকা থেকে শুরু করে হাট-বাজার, রাস্তাঘাট, দোকানপাট, যানবাহন, বাসাবাড়ি সব যায়গায় চাঁদাবাজি করছে তারা। ইদানীং তাদের মাত্রাতিরিক্ত অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন চুনারুঘাট উপজেলাবাসী।

প্রতিনিয়তো চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে এই হিজড়া বাহিনীর বিরুদ্ধে।কয়েকজন ভুক্তভোগী অভিযোগ জানাতে গিয়ে বলেন,উপজেলাজুড়ে আজকাল হরহামেশাই চোখে পড়ছে হিজড়া বাহিনীর দৌরাত্ম।বিশেষ করে বরযাত্রী বহনকারী গাড়ী বাসাবাড়িতে অথবা বিভিন্ন সেন্টারে বিয়ে অথবা যে-কোন অনুষ্ঠানের খবর পেলেই দলবল নিয়ে ‘চাঁদার দাবীতে’ হানা দিচ্ছে হিজড়াদের দল।

৫-৬জনেরএক একটি গ্রুপ বিভিন্ন বাসা-বাড়ি, এমনকি বিয়ে বাড়িতে,সাজানো বিয়ের গাড়িতে ও চাঁদাবাজি করছে। চাঁদার জন্য তারা চিৎকার-চেঁচামেচি,অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করে। প্রয়োজনে তাদের কেউ কেউ বিবস্ত্র হয় এবং এই কৌশলে টার্গেটকে কাবু করে টাকা নিয়ে যায়।
হুট করে হিজড়াদের আক্রমন ও নানা দাবীর মুখে এভাবেই ভয়াবহ রকমের বিব্রত হচ্ছেন অসংখ্য মানুষ।বিভিন্ন সময়ে চুনারুঘাটেে মধ্য বাজার,উত্তর বাজার  হাসপাতাল পয়েন্টে,শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজসহ স্কুল কলেজ এলাকার সামনে এমনি এক বিব্রত ঘটনার মুখোমুখি হচ্ছেন ছাত্রছাত্রী, ডাক্তার, বরযাত্রী, সাংবাদিক সহ বিভিন্ন পেশার মানুষ।স্থানীয় হিজড়াদের দাবী বিয়ের গাড়িথেকে তাদের দিতে হবে ৫/৭ হাজার টাকা।হিজড়া বাহিনীর আক্রমনে বিব্রত হবার ভয়ে বরের গাড়িতে থাকা বরযাত্রীরা টাকা ‘উৎকোচ’ দিতে বাধ্য হন।না দিলে হঠাত করেই ৫/৬ জনের একটি হিজড়া বাহিনী বরের গাড়ির সামনে এসে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গির সাথে সাথে অকথ্য ভাষায় গালাগালি শুরু করে দেয় বা করতে থাকে। এসময় বরের সাথে বরযাত্রী তাদের চলে যেতে অনুরোধ করলে মারমুখি হয়ে উঠে হিজড়ার দল।অনেক সময় মারধরের মত ঘটনা ঘটে থাকে ।

ভুক্তভোগীরা বলছেন, হিজড়াদের বিরুদ্ধে আইন-শৃঙ্খখলা বাহিনী আইনি ব্যবস্হতা না নেওয়ার  কারণে,হিজড়ারা আরো বেপরোয়া হয়ে উঠছে।
এমন চিত্র প্রায় সবখানেই।

হিজড়াদের এমন ভয়াবহ দৌরাত্ম থামাতে প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ অতিদ্রুত কোন কার্যকরি ব্যবস্থা নেবেন,এমনটাই প্রত্যাশা ভুক্তভোগীদের।

 -সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0 comments

Comments Please