সিলেটে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নারীর মৃত্যু

সিলেটে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নারীর মৃত্যু
সেবা ডেস্ক: সিলেটে করোনা ভাইরাস সন্দেহে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া প্রবাস ফেরত নারীর ‘নমুনা’ সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে। মারা যাওয়া ওই নারীর শরীরে করোনোভাইরাস আছে কি না তা নিশ্চিত হতে মরদেহ থেকে রক্ত সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো হচ্ছে।
সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে রোববার ভোর ৪টার দিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে সিলেট শহীদ শামসুদ্দীন হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। ৬১ বছর বয়সী যুক্তরাজ্যফেরত ওই নারীকে গত ২০ মার্চ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি নগরের শামীমাবাদ আবাসিক এলাকার বাসিন্দা ছিলেন।

সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক হীমাংশু লাল রায় জানান, মারা যাওয়া নারী করোনা আক্রান্ত সন্দেহে হাসাপতালে ভর্তি হয়েছিলেন। রোববার তার রক্তসহ ‘নমুনা’ পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আইইডিসিআর-এ প্রেরণ করার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে।

তিনি বলেন, মারা যাওয়া ওই নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য মরদেহ থেকে রক্ত সংগ্রহ করে আইইডিসিআর-এ পাঠানো হচ্ছে। আগামী মঙ্গলবার এ রিপোর্ট হাতে পাওয়া যাবে।

তিনি আরো বলেন, যেহেতু মৃত ব্যক্তির দেহ থেকেও করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে তাই ওই নারীর রিপোর্ট হাতে না পাওয়া পর্যন্ত তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা যাবে না। যদি তার দেহে করোনা থেকে থাকে তাহলে সরকারের নিয়মানুযায়ী নিহতের মরদেহ দাফন হবে। আর ভাইরাস পাওয়া না গেলেও যথারীতি স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ৪ মার্চ যুক্তরাজ্য থেকে দেশে ফেরার পর তার জ্বর-সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে তাকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে ২০ মার্চ থেকে হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে রাখা হয়।

 -সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন


, ,