ইসলামপুরে জ্বীন পরিচয়ে মাদরাসা ছাত্রী ধর্ষণকারী সাইফুল আটক

ইসলামপুরে জ্বীন পরিচয়ে মাদরাসা ছাত্রী ধর্ষণকারী সাইফুল আটক

লিয়াকত হোসাইন লায়ন, জামালপুর প্রতিনিধি:  জামালপুরের ইসলামপুরে জ্বীন পরিচয়ে মাদরাসা ছাত্রী(১৩) ধর্ষণ ঘটনার আসামী মোহতামিম হাফেজ সাইফুলকে(৩৬) কে আটক করেছে ইসলামপুর থানা পুলিশ।
আটককৃত ধর্ষক হাফেজ সাইফুল উপজেলার চরপুটিমারি ইউনিয়নের বাগে জান্নাত তালিমুন নিছা কওমী মহিলা মাদরাসা ও এতিমখানার মোহতামিম। সে চিনারচর গ্রামের মৃত ইন্তাজ বেপারীর ছেলে।
অভিযোগে জানা যায়, ২০১৫ সালে ওই মাদরাসা প্রতিষ্ঠা করার পর থেকে মোহতামিম হাফেজ সাইফুল বিভিন্ন অনৈতিক কাজে জড়িত হয়ে কৌশলে মাদরাসার ছাত্রীদের যৌন হয়রানী সহ জ্বীন পরিচয়ে মাদরাসার আবাসিক ছাত্রী ধর্ষণ করতেন। 
ভোক্তভোগী শ্লীতাহানীর শিকার ছাত্রীরা জানায়, অভিযুক্ত মোহতামিম হাফেজ সাইফুল আমাদের প্রতিনিয়ত জ্বীন পরিচয়ে যৌন হয়রানী করতো। বিষয়টি আমরা অভিভাবকদের জানাতে চাইলে হুজুর আমাদের কাউকে না বলার জন্য কোরআন শরীফ নিয়ে শপথ করায় এবং ভয় দেখায়। এসব ঘটনায় হুজুরের অত্যাচারে অতীষ্ট হয়ে ধর্ষণের শিকার মাদ্রাসার এক ছাত্রী(১৩) তার পরিবারকে জানালে পরিবারের পক্ষ থেকে গত ২৩মে ইসলামপুর থানায় ওই মাদরাসার মোহতামিম হাফেজ সাইফুল(৩৬) কে আসামী করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়। মামলা হওয়ার খবর পেয়ে ধর্ষক সাইফুল ইসলাম মাদরাসা থেকে আত্মগোপনে চলে যায়।
এ ব্যাপারে ইসলামপুর সার্কেল সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সুমন মিয়া জানান, পলাতক ধর্ষক সাইফুলকে ধরতে আমরা বিভিন্নভাবে অনুসন্ধান করতে থাকি। এক পর্যায়ে সোমবার রাত ৯টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রফিকুল ইসলাম রফিক,হান্নান মিয়াসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে টঙ্গী স্টেশন রোডে তার নিকটাত্মীয় বাসা থেকে ধর্ষক সাইফুলকে আটক করতে সক্ষম হয়। পরে আটককৃত ধর্ষক সাইফুলকে মঙ্গলবার দুপুরে জামালপুর কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।
 

শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।