বকশীগঞ্জে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী পূর্ণিমা

বকশীগঞ্জে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী পূর্ণিমা



বকশীগঞ্জ প্রতিনিধি : জামালপুরের বকশীগঞ্জে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে পূর্ণিমা আক্তার (১৪) নামে এক স্কুল ছাত্রীর বাল্য বিবাহ বন্ধ হয়েছে। 

সে বকশীগঞ্জ উলফাতুন্নেছা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

শুক্রবার সন্ধ্যায় বকশীগঞ্জ পৌর শহরের চরকাউরিয়া সীমারপাড় এলাকায় বাল্য বিবাহটি বন্ধ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মুন মুন জাহান লিজা। 

জানা গেছে, দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরাবাদ ইউনিয়নের মাদারেরচর গ্রামের খোরশেদ আলমের ছেলে হাবিবুল্লাহ মুরাদের সাথে বকশীগঞ্জ পৌর শহরের সীমার পাড় এলাকার মো. বাবুল মিয়ার নাবালিকা মেয়ে পূর্ণিমা আক্তারের বিয়ে ঠিক হয়। 

বিয়ের সকল প্রস্তুতি শেষে শুক্রবার সন্ধ্যায় বিয়ে সম্পন্ন করার কথা ছিল। 

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে ইউএনও মুন মুন জাহান লিজা বিয়ের বাড়িতে হানা দেন এবং মেয়েটির বয়স ১৮ বছর না হওয়ায় বিয়ের সকল কার্যক্রম তাৎক্ষণিক বন্ধ করে দেন। 

এ সময় ১৮ বছরের আগে তাদের মেয়েকে আর বিয়ে দেবেন না মর্মে ইউএনওর কাছে লিখিত অঙ্গীকার করেন পূর্ণিমার বাবা ও মা।

 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।