রৌমারীতে যৌতুক না দেওয়ায় গৃহবধুকে পিটিয়ে আহত

রৌমারীতে যৌতুক না দেওয়ায় গৃহবধুকে পিটিয়ে আহত



শফিকুল ইসলাম: কুড়িগ্রামের রৌমারীতে যৌতুকের দাবীতে আনোয়ারা খাতুন (৩০) নামের এক গৃহবধুকে পিটিয়ে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিল স্বামী। 

আহতকে উদ্ধার করে রৌমারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নির্যাতনের শিকার ওই নারীর বাবা বাদী হয়ে শ্বশুর, শ্বাশুরি, স্বামী ও ননদকে আসামী করে রৌমারী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। 

গত শনিবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার শৌলমারী ইউনিয়নের নতুনশৌলমারী গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। 

অভিযোগ ও পরিবার সুত্রে জানা গেছে, শৌলমারী ইউনিয়নের চতলাকান্দা গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে আনোয়ারার সাথে  একই ইউনিয়নের নতুনশৌলমারী গ্রামের তসোর মিস্ত্রির ছেলে নুর আলমের ১৫ বছর আগে বিয়ে হয়। 

দাম্পত্য জীবনে তাদের ঘর সংসার ভালোই চলছিল। এরই মধ্যে তাদের ঘরে দুটি সন্তানও রয়েছে। বিয়ের কিছু দিন পর থেকেই স্ত্রীর কাছে যৌতুকের দাবী করে আসছে স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন। 

যৌতুক দিতে না পারায় ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামী নুর আলম শাপলা নামের অন্য একটি মেয়েকে দ্বিতীয় বিয়ে করে। এতে বাধা দেওয়া স্ত্রীর উপর নেমে আসে অমানষিক নির্যাতন।

স্বামী নুর আলম,  শ্বশুর তসোর মিস্ত্রি, শ্বাশুরি নুরবানু ও ননদ জাহানারাসহ পরিবারের লোকজন মিলে প্রথম আনোয়ারাকে বেধরক মারপিট করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়। 

পরে আশপাশের লোকজন আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রৌমারী হাসপাতালে ভর্তি করান। বর্তমানে সে চিকিৎসাধীনে রয়েছে। 

এর আগেও প্রতিদিনেই সময় অসময়ে নির্যাতন চালাতো আনোয়ারার উপর।

এঘটনায় নির্যাতনের শিকার আনোয়ারার বাবা আবুল হোসেন বাদী হয়ে রৌমার্রী থানায় স্বামী, শ্বাশুরি, ননদ ও শ্বশুরের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।  

রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোন্তাছেল বিল্লাহ জানান, অভিযোগ পেয়েছি এবং তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।