উল্লাপাড়ায় দলীয় মনোনয়ন পেতে বিদ্রোহীরা বিপাকে

উল্লাপাড়ায় দলীয় মনোনয়ন পেতে বিদ্রোহীরা বিপাকে



রাজু আহমেদ সাহান-উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ঘোষিত ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া থানার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদে স্থানীয় সরকারের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। 

পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নৌকা মার্কা প্রতীকের মনোনয়ন প্রত্যাশী থানা আ’লীগের কাছে ৭২ জন দলীয় প্রার্থী ইতিমধ্যে দলের কাছে আবেদন করেছেন। 

মঙ্গলবার সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ দলীয় বিধি মোতাবেক মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নামের তালিকা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে পাঠিয়েছে। 

এদের মধ্যে ৩ (তিন) জন রয়েছেন দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী। 

তারা হলেন, উল্লাপাড়ার পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী আল-আমীন সরকার, এস. এম. রাশেদুল হাসান ও উধুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জলিল প্রামানিক।

আ’লীগ দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের স্থানীয় সরকার নির্বাচনে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার উধুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকা মার্কা প্রতীক মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী রেজাউল করিম বাচ্ছুর বিরুদ্ধে স্থানীয় আ’লীগ নেতা বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল প্রামানিক বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ নেন। 

অপরদিকে ২০১৭ সালে পুর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচনে আ’লীগের নৌকা মার্কা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থী রেজাউল করিম তপনের বিরুদ্ধে বর্তমান চেয়ারম্যান আল-আমীন সরকার বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মোটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেন। 

একই ইউনিয়নে ২০১৬ সালে আ’লীগ দলীয় প্রার্থী মরহুম আলহাজ্ব খলিলুর রহমানের নৌকা মার্কা প্রতীকের বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ঘোড়া মার্কায় প্রতিদ্ব›দ্বীতা করেন এস. এম. রাশেদুল হাসান রাশেদ। 

বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জলিল প্রামানিক, আল আমীন সরকার ও রাশেদুল হাসানকে ইতিপুর্বে আওয়ামীলীগ থেকে বহিস্কার করা হয়।

উল্লাপাড়া উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা জানান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে উল্লাপাড়া থানার ১০ টি ইউনিয়ন থেকে ৭২ জন দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীর নামের তালিকা জেলা আওযামীলীগে পাঠানো হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ তালুকদার জানান, উপজেলা আওয়ামী লীগের পাঠানো তালিকা মোতাবেক জেলা আ’লীগ যাচাই-বাছাই করে মন্তব্য কলামে বিদ্রোহী প্রার্থীদের চিহিৃত করে প্রার্থীদের নামের তালিকা কেন্দ্রীয় আ’লীগে পাঠানো হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কেএম হোসেন আলী হাসান জানান, কেন্দ্রীয় আ’লীগের নিদের্শে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নামের তালিকা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। 

তবে যুদ্ধ অপরাধী পরিবারের সদস্য, দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী ও আ’লীগ দলের সদস্য নয় এমন প্রার্থীদের চিহিৃত করে তালিকায় তাদের নামের পাশে মন্তব্যের কলামে বিস্তারিত বিবরণসহ তালিকা প্রণয়ন করে পাঠানো হয়েছে। 

অন্য এক প্রশ্নের আলোকে তিনি আরো জানান, যুদ্ধ অপরাধী পরিবারের সদস্য ও বিদ্রোহী প্রার্থীদের আগামী নির্বাচনে দল থেকে মনোনয়ন পাওয়ার কোন সম্ভবনা নেই।

 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।