মালদ্বীপ-বাংলাদেশের মধ্যে তিন চুক্তি-সমঝোতা

মালদ্বীপ-বাংলাদেশের মধ্যে তিন চুক্তি-সমঝোতা



সেবা ডেস্ক: বাংলাদেশ মালদ্বীপে’র মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা বাড়াতে একটি চুক্তি এবং দুটি সমঝোতা স্মা’রক স্বাক্ষরিত হয়েছে। পাশাপাশি বন্ধুত্বে’র প্রতীক হিসেবে মালদ্বীপকে ১৩টি সামরিক যান উপহা’র দিয়েছে বাংলাদেশ। 

মালদ্বীপে’র রাজধানী মালেতে গতকাল দেশটি’র প্রেসিডেন্ট ইবরাহিম মোহাম্মদ সলিহ’র মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে’র প’র দুই নেতা’র উপস্থিতিতে এসব চুক্তি-সমঝোতা স্মা’রক স্বাক্ষ’র হস্তান্ত’র হয়। 

বৈঠকে’র প’র দুই নেতা’র যৌথ বিবৃতিতে বাণিজ্য, বিনিয়োগ যোগাযোগ বাড়ানো’র মাধ্যমে সহযোগিতা আ’রও জো’রদা’র করা’র প্রত্যয় ঘোষিত হয়েছে। 

বৈঠকে’র আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা দিয়েছে মালদ্বীপ। পরে মালদ্বীপে’র পার্লামেন্টে ভাষণ দিয়েছেন বাংলাদেশে’র প্রধানমন্ত্রী।

বুধবা’র মালদ্বীপে পৌঁছানো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল সকালে মালেতে প্রেসিডেন্টে’র দফতরে পৌঁছালে মালদ্বীপে’র প্রেসিডেন্ট ইবরাহিম মোহাম্মদ সোলিহ তাকে স্বাগত জানান। 

সেখানে লাল গালিচা সংবর্ধনা’র প’র গার্ড অব অনা’র এবং গান স্যালুটে তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে অভ্যর্থনা জানানো হয়। 

প্রধানমন্ত্রী দুই দেশে’রলাইন অব প্রেজেন্টেশনপরিদর্শন করেন এবং প্রেসিডেন্টে’র কার্যালয়ে দর্শনার্থী বইয়ে স্বাক্ষ’র করেন। 

পরে দুই দেশে’র আনুষ্ঠানিক বৈঠকে নেতৃত্ব দেন মালদ্বীপে’র প্রেসিডেন্ট সোলিহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

বৈঠকে বাংলাদেশে’র প্রতিনিধি দলে প’ররাষ্ট্রমন্ত্রী . একে আবদুল  মোমেন, প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদ স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকসহ অন্যরা ছিলেন। 

পরে বাংলাদেশ মালদ্বীপে’র দুই শীর্ষ নেতা’র উপস্থিতিতে স্বাক্ষ’র হয় চুক্তি সমঝোতা। এ’র মধ্যে চুক্তিটি করা হয়েছে দুই দেশে’র আন্তবাণিজ্যে দ্বৈত ক’র পরিহারে’র লক্ষ্যে। 

স্বাস্থ্যসেবা সহযোগিতা এবং বাংলাদেশ থেকে চিকিৎসক পাঠানো’র বিষয়ে যে সমঝোতা স্মা’রক মালদ্বীপে’র সঙ্গে ছিল, তা’র মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। 

ছাড়া দুই দেশে’র যুব ক্রীড়া উন্নয়নে সহযোগিতা বাড়াতে আরেকটি সমঝোতা স্মা’রক স্বাক্ষরিত হয়েছে। 

বন্ধুত্বে’র প্রতীক হিসেবে মালদ্বীপকে ১৩টি সামরিক যান উপহা’র দিয়েছে বাংলাদেশ। অনুষ্ঠানে সেগুলো আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্ত’র করা হয়। 

পরে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য, বিনিয়োগ যোগাযোগ উন্নয়নে’র বিষয়ে প্রেসিডেন্ট সলিহ’র সঙ্গে তা’র বিশদ আলোচনা হয়েছে। দুই দেশে’র মধ্যে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, মানবসম্পদ উন্নয়ন, যুব ক্রীড়া, মৎস্য কৃষি খাতে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা জো’রদা’র ক’রতে তারা সম্মত হয়েছেন। 

জলবায়ু পরিবর্তনে’র চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা এবং রোহিঙ্গাদে’র দ্রুত মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে একসঙ্গে কাজ ক’রতেও সম্মত হয়েছেন তারা। 

দুই দেশে’র মধ্যে একটি অগ্রাধিকা’রমূলক বাণিজ্য চুক্তি (পিটিএ) এবং পা’রস্পরিক বিনিয়োগ সুবিধা’র জন্য একটি দ্বিপক্ষীয় বিনিয়োগ সু’রক্ষা ব্যবস্থা’র প্রয়োজনীয়তা’র ওপ’র বৈঠকে জো’র দিয়েছেন জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, সুযোগ থাকা’র প’রও আমরা দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বিনিয়োগে’র সম্ভাবনাকে এখনো পুরোপুরি কাজে লাগাতে পারিনি। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি কথা জানাতে পেরে আনন্দিত যে আমরা আমাদে’র দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে’র সামগ্রিক বিষয়ে অত্যন্ত ফলপ্রসূ আলোচনা করেছি। 

আমরা আমাদে’র পূর্ববর্তী সিদ্ধান্তগুলো’র অগ্রগতি পর্যালোচনা করেছি এবং ফলাফল সন্তোষজনক পেয়েছি। 

বহুপক্ষীয় ফোরামে সহযোগিতা, একে অপরে’র প্রার্থীদে’র সমর্থন দেওয়া এবং সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় সহযোগিতা’র বিষয়েও দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। 

শেখ হাসিনা বলেন, এটা অত্যন্ত সন্তুষ্টি’র বিষয় যে বাংলাদেশ থেকে স্বাস্থ্য পেশাজীবীদে’র নিয়োগে’র জন্য মালদ্বীপে’র প্রস্তাব বাংলাদেশ গ্রহণ করেছে। আমরা মালদ্বীপে’র ছাত্রদে’র জন্য বিশেষায়িত স্নাতকোত্ত’র মেডিকেল কোর্সে’র সুযোগ তৈরি ক’রব। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা আশা করি, সরাসরি ফ্লাইটে’র মাধ্যমে জনগণে’র মধ্যে যোগাযোগ এবং পর্যটন সহযোগিতা’র আদান-প্রদান বৃদ্ধি পাবে। আমরা একটি সরাসরি শিপিং লাইন স্থাপনে’র সম্ভাবনাও পর্যালোচনা ক’রছি। 

কনস্যুলা’র কমিউনিটি’র সমস্যাগুলো দ্বিপক্ষীয় আলোচনায় প্রাধান্য পেয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অনিবন্ধিত বাংলাদেশি কর্মীদে’র নিবন্ধনে’র বিষয়টি মালদ্বীপ আলোচনায় তুলেছে। 

বাংলাদেশ মালদ্বীপে’র নাগরিকদে’র জন্যঅন অ্যারাইভাল ভিসাব্যবস্থা চালু’র সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আ’র মালদ্বীপে’র প্রেসিডেন্ট সলিহ বলেছেন, দুই দেশে’র শীর্ষ নেতৃত্বে’র সফ’র বিনিময়ে’র মধ্য দিয়ে বছ’র বাংলাদেশ মালদ্বীপে’র সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে। 

বিকালে রাজধানী মালে’র হোটেল জিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন মালদ্বীপে’র ভাইস প্রেসিডেন্ট ফয়সাল নাসিম, পার্লামেন্টে’র স্পিকা’র মোহাম্মদ নাশিদ এবং দেশটি’র প্রধান বিচা’রপতি উজ আহমেদ মুতাসিম আদনান। 

এসব সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে মালদ্বীপে’র পার্লামেন্টে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পার্লামেন্টে দেওয়া ভাষণে শেখ হাসিনা বাংলাদেশ মালদ্বীপে’র উষ্ণ সম্পর্কে’র কথা তুলে ধরেন এবং মালদ্বীপে’র স’রকারি-বেস’রকারি উদ্যোক্তাদে’র বাংলাদেশে বিনিয়োগে’র আহ্বান জানান। 

সন্ধ্যায় মালদ্বীপে’র প্রেসিডেন্ট এবং ফার্স্ট লেডি’র দেওয়া ভোজ সভায় যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। 

আজ শুক্রবা’র তিনি মালদ্বীপে প্রবাসী বাংলাদেশিদে’র দেওয়া এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যোগ দেবেন। সফ’র শেষে ২৭ ডিসেম্ব’র বিকালে ঢাকা ফি’রবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।