আ’লীগ দেশ পরিচালনায় থাকলে উন্নয়ন নিশ্চিত হয়- ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

আ’লীগ দেশ পরিচালনায় থাকলে উন্নয়ন নিশ্চিত হয়- ধর্ম প্রতিমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিগত ১৩ বছরে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব  উন্নয়ন আজ সর্বত্র দৃশ্যমান। কৃষি, খাদ্য, যোগাযোগ, শিক্ষা, প্রযুক্তি, মাথা পিছু গড় আয় বৃদ্ধিসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে আশাতীত উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল।বর্তমান গতিতে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকলে ২০৪১ সালের পূর্বেই বাংলাদেশ উন্নত দেশের পর্যায়ে পৌঁছে যাবে

লিয়াকত হোসাইন লায়ন, জামালপুর প্রতিনিধি।। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী  ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ইসলামপুর উপজেলা শাখার সভাপতি মোঃ ফরিদুল হক খান বলেছেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দেশ পরিচালনায় থাকলে দেশের উন্নয়ন নিশ্চিত হয়। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিগত ১৩ বছরে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব  উন্নয়ন আজ সর্বত্র দৃশ্যমান। কৃষি, খাদ্য, যোগাযোগ, শিক্ষা, প্রযুক্তি, মাথা পিছু গড় আয় বৃদ্ধিসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে আশাতীত উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল।বর্তমান গতিতে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকলে ২০৪১ সালের পূর্বেই বাংলাদেশ উন্নত দেশের পর্যায়ে পৌঁছে যাবে।


ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, এক সময় ভিক্ষা করে বাংলাদেশকে চলতে হতো। এখন বাংলাদেশ অন্য দেশকে খাদ্য ও ঋন সহায়তা প্রদান করছে। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রায় শেষ পর্যায়ে। নিজস্ব অর্থায়নে  ৯ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ৫৬০ টি মডেল মসজিদ ও ইসলাম সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মিত হচ্ছে। এসবই  বাংলাদেশের  সক্ষমতার নিদর্শন যা সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধু  কন্যা বাংলাদেদশের নেতৃত্বে থাকার কারণে। 


প্রতিমন্ত্রী বুধবার বিকেলে  ইসলামপুর উপজেলার সাপধরী ইউনিয়নে আমতলী আফরোজা হক বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে সাপধরী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজনে বর্ধিত সভায় এসব কথা বলেন।


প্রতিমন্ত্রী বলেন,  বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশের পিছিয়ে পড়া  জনগোষ্ঠীর কল্যাণে  বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। নারী ও শিশুদের কল্যাণকে গুরুত্ব দিয়ে  তিনি কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই দেশে বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, স্বামী পরিত্যক্তভাতা,প্রতিবন্ধীভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা,উপবৃত্তিসহ হত দরিদ্র মা ও শিশুদের জন্য যত্ন প্রকল্প দেশের ৪৩ উপজেলায় চালু রয়েছে। 


স্থানীয় উন্নয়নের কথা তুলে ধরে প্রতিমন্ত্রী বলেন, যমুনার পশ্চিম তীরবর্তী দূর্গম চরাঞ্চলের মানুষকে বিদ্যুৎ সুবিধার দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করে  সাব মেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে মুজিব শতবর্ষের মধ্যেই যমুনার চরাঞ্চলের বিদ্যুৎ আনার ব্যবস্থা করেছেন। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে

১৮ কোটি মানুষের জন্য টিকার ব্যবস্থাসহ মানবতার মা শেখ হাসিনা ১০ লক্ষ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। 

বাংলাদেশ  বিশ্বের দরবারে মাথা উচু করে দাঁড়িয়েছে। তলাবিহীন ঝুঁড়ি থেকে উপচে পড়া ঝুড়িতে পরিণত হয়েছে। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সংগঠন, স্বাধীনতার সপক্ষের শক্তি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে কোন অপশক্তিই আমাদের ক্ষতি করতে পারবেনা। 


তিনি উপস্থিত নেতা কর্মীদের মান অভিমান ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে  ইউনিয়ন পরিষদ সহ যে কোন নির্বাচনে আওয়ামীলীগ তথা শেখ হাসিনার  মনোনিত প্রার্থীর পক্ষে কাজ  করে নৌকা মার্কার  প্রার্থীকে বিজয়ী করে শেখ হাসিনার  হাতকে শক্তিশালী করার আহবান জানান। 


সাপধরী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মোঃ তমছের মণ্ডলের সঞ্চালনায় বর্ধিত সভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আব্দুস ছালাম,উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড. এস এম জামাল আব্দুন নাছের বাবুল, সহ সভাপতি মুজিবুর রহমান শাহজাহান,  সদস্য নুরুল ইসলাম নুরু, সাপধরী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জয়নাল আবেদীন, শাহ আলম মণ্ডল, সবুজ মিয়া প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। সভা শেষে প্রতিমন্ত্রী চরাঞ্চলের শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন। 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।