রৌমারীতে কনস্টেবলের আত্মহত্যা

রৌমারীতে কনস্টেবলের আত্মহত্যা



 : আব্দুর রহিম (৩৮) নামের এক পুলিশ কনস্টেবল আত্মহত্যা করেছে। সোমবার (২৮ মার্চ) সন্ধ্যার দিকে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়নের দক্ষিণ টাপুরচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সে ওই গ্রামের মৃত দেলোয়ার হোসেনের ছেলে বলে জানা যায়।


স্থানীয় ও পরিবার সুত্রে জানা গেছে, আব্দুর রহিম জামালপুর সদর থানার ২ নং পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত ছিলেন। গত ১৮ মার্চে তিনি ২৮ দিনের ছুটি নিয়ে নিজ বাড়িতে চলে আসেন। বাড়িতে রহস্যজনক ভাবে তার গোয়ালঘরের ধরনার সাথে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। তবে কেন সে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে তা সুনিদিষ্ট কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। তার ঘরে স্ত্রী ও তিন সন্তান রয়েছে।


নিহতের স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন শিল্পি জানান, আমার স্বামী অনেক দিন থেকে মানসিক রোগে ভোগছেন। আজ হঠাৎ তার গোয়ালঘরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।


জামালপুর সদর থানার ওসি রেজাউল ইসলাম খান মোবাইল ফোনে জানান, আমার থানায় কনস্টেবল আব্দুর রহিম সে সুস্থ শরীরে থাকা অবস্থায় ছুটি নিয়ে তার বাড়িতে চলে যায়। 


রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোন্তাছের বিল্লাহ জানান, পরিবারের লোকজন জানায় সে মানসিক রোগে ভোগছিলেন । পুলিশ গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 


জামালপুর পুলিশ সুপার নাছির উদ্দিন আহমেদ জানান, নিহতের পরিবার সূত্রে জানতে পারি সে হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে সে মৃত্যু বরণ করেন। 



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।