জামালপুরে হাইটেক পার্ক নির্মানের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন পলক

হাইটেক পার্ক হবে মূল অর্থনীতির চালিকাশক্তি জুনায়েদ আহমেদ পলক



 : বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশের আধুনিক রূপ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে হাইটেক পার্ক হবে মূল অর্থনীতির চালিকাশক্তি। 

বাংলাদেশে সাড়ে ৪ হাজার ইউনিয়নে ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, এখন ১৩ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী সৃষ্টি হয়েছে। ষষ্ঠ শ্রেণী থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত আইসিটি বিষয় বাধ্যতামূলক করায় এখন সাড়ে ৬ লক্ষ ফ্রিল্যান্সার তৈরি হয়েছে। তরুণরা যেন শুধুমাত্র সনদ নির্ভর শিক্ষায় শিক্ষিত না হয়ে প্রযুক্তি শিক্ষায় দক্ষ মানব সম্পদে পরিণত হতে পারে সেজন্য সারাদেশে ৬৪টি শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকুবেশন সেন্টার, ১২টি হাইটেক পার্ক ও ছোট-বড় মিলিয়ে ৯২টি হাইটেক পার্ক নির্মান করা হচ্ছে। 

শনিবার দুপুরে জামালপুরের মুকন্দবাড়ী এলাকায় হাইটেক পার্ক নির্মানের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী। 

তিনি আরও বলেন, জামালপুর হাইটেক পার্কে প্রতি বছর ৩ হাজার তরুণ তরুণীর কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে, ১ হাজার জনকে সরাসরি প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। এখানে হাইস্পিড ইন্টারন্টে, নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ও আন্তর্জাতিক মানের কর্ম পরিবেশ পাবে। এখানে বসেই ইউরোপ আমেরিকার বড় বড় কোম্পানিতে কাজ করতে পারবে তরুনরা। 


পরে জেলা শিল্পকলা একাডেমীর বীর মুক্তিযোদ্ধা গীতিকার নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে এ উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। স্থানীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক এমপি, মির্জা আজম এমপি, জেলা প্রশাসক শ্রাবস্তী রায়, জেলা পরিষদ প্রশাসক ফারুক আহাম্মেদ চৌধূরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ প্রমুখ। ১৫৩ কোটি টাকা ব্যায়ে হাইটেক পার্কটি নির্মানে সময় লাগবে দুই বছর। 



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।