সরিষাবাড়ীতে ইটের ডিলে প্রতিবেশী নিহতের ঘটনায় থানায় মামলা

 : জামালপুরে সরিষাবাড়ীতে বাবা ছেলের মারামারি ফেরাতে গিয়ে প্রতিবেশী মেহেরুন্নেছা নিহতের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে ।  নিহতের স্বামী রহিজ উদ্দিন বাদী হয়ে সোমবার বিকেলে সরিষাবাড়ী থানায় মামলা দায়ের করেন।

সরিষাবাড়ীতে ইটের ডিলে প্রতিবেশী নিহতের ঘটনায় থানায় মামলা



 স্থানীয় ও মামলা সুত্রে জানা যায়,উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নের ফুলনাড়ীয়া গ্রামের ফরহাদ আলীর ছেলে জিহাদ মিয়া কিছুদিন পূর্বে হাফিজিয়া মাদ্রাসা থেকে কোরআনের হাফেজ হয়ে বের হওয়ায় বাবার কাছে একটি মোবাইল ফোন দাবি করে আসছিল। কিন্তু বাবা ফরহাদ আলী ছেলেকে মোবাইল কিনে দিতে রাজি না হওয়ায় ১৭ সেপ্টেম্বর শনিবার দুপুরে তাদের বাবা- ছেলের মধ্যে ঝগড়া লাগে। আর এই ঝগড়া ফেরাতে গিয়েই ইটের ঢিলের স্বীকার হয়ে সরিষাবাড়ী উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নের রইস উদ্দিনের স্ত্রী মেহেরুন্নেসা ঘটনাস্থলেই মারা যান।  পরে পুলিশ সংবাদ পেয়ে  সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ মহব্বত কবীর ও ওসি তদন্ত আব্দুল মজিদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নিহতের লাশটি উদ্ধার করে শনিবার সন্ধ্যায় সরিষাবাড়ী থানায় নিয়ে আসে । পরদিন ১৮ সেপ্টেম্বর রবিবার সকালে জামালপুর জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করেন।  ১৮ সেপ্টেম্বর নিহতের জানাযা দাফন সম্পন্ন হয়।  ২০ সেপ্টেম্বর সোমবার নিহতের স্বামী রহিজ উদ্দিন ৩০৪ ধারায় জিহাদকে প্রধান আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করে।  মামলা নংঃ ২৪,তারিখঃ১৯/৯/২০২২ ইং।  আসামী গ্রেফতার ও  সঠিক তদন্তের মাধ্যমে বিচারের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী৷


এ বিষয়ে সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ মহব্বত কবীর জানান, নিহতের স্বামী জিহাদকে প্রধান আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেছে। আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। দ্রুতই আসামীকে গ্রেফতার করবে সরিষাবাড়ী থানা পুলিশ।


শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।