নন্দীগ্রামে মোটরসাইকেল কিনে না দেওয়ায় স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা

 : অনেক বন্ধুর মোটরসাইকেল আছে। বন্ধুদের সঙ্গে সমানে সমান হতে গেলে মোটরসাইকেল লাগবেই লাগবে। পিতা-মাতার কাছে এমন দাবি ছিল সন্তানের।

নন্দীগ্রামে মোটরসাইকেল কিনে না দেওয়ায় স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা



 বগুড়ার নন্দীগ্রামে মোটরসাইকেল কিনে না দেওয়ায় অভিমান করে পলাশ (১৬) নামের এক স্কুলছাত্র গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেছে। সে উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের মুরাদপুর তেতুলিয়াগাড়ী এলাকার জিয়াউর রহমানের ছেলে এবং পাশ^বর্তী শেরপর উপজেলার তাতড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ শ্রেণির ছাত্র বলে জানা গেছে। 

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নন্দীগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক রেজাউল করিম এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, আত্মহত্যার ঘটনায় থানায় কোনো মামলা বা জিডি দায়ের হয়নি। 

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, একটি মোটরসাইকেল কেনার জন্য বায়না ধরে স্কুলছাত্র পলাশ। পিতা-মাতা রাজি না থাকায় অভিমান করে গত বুধবার বিকেলে নিজ বাড়িতে সবার অজান্তে গ্যাস ট্যাবলেট খায় ওই স্কুলছাত্র। তাকে অসুস্থ অবস্থায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। 



শেয়ার করুন

সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।