সিলেটে ওএমএস’র ১৫ বস্তা চাল পাচারকালে জনতার হাতে আটক ১

সিলেটের গোলাপগঞ্জে ওএমএস’র ১৫ বস্তা চাউল পাচারকালে জনতার হাতে আটক ১

Golapganj Sylhet 15 sacks of OMS trafficking in the custody

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি: গোলাপগঞ্জে ওএমএস’র ১৫ বস্তা চাল পাচারকালে আব্দুল মালেক (৪৫) নামের এক ব্যক্তিকে স্থানীয় জনতা হাতেনাতে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। সোমবার সকালে উপজেলার ফুলবাড়ি ইউনিয়নের হেতিমগঞ্জে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার হেতিমগঞ্জে ওএমএস এর ডিলার মো. ফিরোজ মিয়ার নির্দেশে তার ম্যানেজার আব্দুল মালেক ওএমএস’র চালের বস্তা বদল করে ১৫ বস্তা চাল অন্যত্র পাচার করছিল। গোপনে বিষয়টি এলাকাবাসী জানতে পেরে হেতিমগঞ্জ মোল্লাগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে থেকে চালসহ ম্যানেজার আব্দুল মালেককে আটক করেন।


পরে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয় এবং পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ম্যানেজার আব্দুল মালেককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এসময় পাচারকৃত ১৫ বস্তা চাল জব্দ করে স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রহিমের জিম্মায় রেখে আসা হয়।

আরও পড়ুনঃ গোলাপগঞ্জের লক্ষনাবন্দে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, মা-শিশু সহ নিহত ৫

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন।


ফুলবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান ফয়ছল জানান, আমার কাছে লোকজন অভিযোগ করেছে, তারা ঠিকমতো চাল পাচ্ছেনা। ডিলার ফিরোজ ও ম্যানেজার আব্দুল মালেকের উপর এলাকাবাসীর অনেক অভিযোগ রয়েছে। তিনি বলেন, এসব অভিযোগ পেয়ে আমি ডিলারের সাথে বার বার ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি আমার ফোন পর্যন্ত রিসিভ করেনি।

আরও পড়ুনঃ গোলাপগঞ্জে পুবালী ব্যাংকের গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্টিত

এ বিষয়ে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা সাইফুল আলম সিদ্দিকী বলেন, এ বিষয়টি নিয়ে আমি অবগত আছি। এই ডিলারের বিরুদ্ধে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।


গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম ফজলুল হক শিবলী জানান, এ ব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
 -

,
themeforestthemeforest