বাঁশখালীতে সর্ব্বোচ্চ বৃত্তিপ্রাপ্ত প্রতিষ্টান বায়তুল ইরফান আদর্শ মাদরাসা

বাঁশখালীতে সর্ব্বোচ্চ বৃত্তিপ্রাপ্ত প্রতিষ্টান বায়তুল ইরফান আদর্শ মাদরাসা

Baitul Irfan Model Madrasa, the highest paid institution in Banshkhali

শিব্বির আহমদ রানা, বাঁঁশখালী প্রতিনিধি: ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ট্যালেন্টপুলে সর্বোচ্চ বৃত্তি পেয়ে মেধা তালিকায় প্রথম স্থান অধিকারের গৌরব অর্জন করেছে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার অন্তর্গত উত্তর জলদী ভাদালিয়া হারুন বাজারস্হ বায়তুল ইরফান আদর্শ মাদরাসা’র শিক্ষারর্থীরা। 

মাদরাসা সূত্রে জানা যায়, প্রতি বৎসরের ন্যায় এবছরেও সাফল্যের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখেছে তারা। বিগত ২০১৭ শিক্ষাবর্ষের ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনি পরিক্ষায় বায়তুল ইরফান আদর্শ মাদ্রাসার ৫৬ জন শিক্ষার্থী সরকারীভাবে শিক্ষা মন্ত্রনালয় কর্তৃক ঘোষিত ট্যালেন্টপুল ও সাধারণ বৃত্তি তালিকায় ১৬ জন ট্যালেন্টপুল, ২১ জনের সাধারণ গ্রেডে বৃত্তিলাভ সহ মোট ৩৭ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি লাভ করে।
মাদরাসা পর্যায়ে দক্ষিণ চট্টগ্রামের বাঁঁশখালী উপজেলার বিভিন্ন মাদরাসাস্তরের মধ্যে প্রতিবারের ন্যায় এবারও সফলতার শীর্ষ স্থান ধরে রেখে সুখ্যাতি অর্জন করেছে। পরীক্ষার প্রকাশিত ফলাফলে সন্তোষজনক সাফল্য অর্জন করেছে উক্ত মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা।


আরও পড়ুনঃ বাঁশখালীতে ৫ লক্ষাধিক টাকার নকল বই জব্দ, আটক ৩

প্রতিবছরের ন্যায় ২০১৭ শিক্ষার্বষে সমাপনি পরিক্ষায় এই মাদরাসা কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জন করে। এতে ১৬ জন ছাত্র-ছাত্রী ট্যালেন্টপুল বৃত্তি লাভ করেছেন তাদের মধ্যে আসআদুল ইসলাম, মিছবাহুর রহমান, ইরফান উদ্দীন আশেক, সাইফুর রহমান জাবেদ, মুনতাসির বিল্লাহ রাফি, সাইফুর রহমান, সাইফুল্লাহ রুবেল, মাহমুদুল হাসান শিবলি, তাহিয়্যা জান্নাত তানহা, জান্নাতুল ফেরদৌস, আয়েশা ছিদ্দিকা, কাশেফাতুন্নাঈম, আয়েশা ছিদ্দিকা, ছায়েরাতুল মোস্তাক, শামিমা আক্তার, জান্নাতুল মাওয়া এবং অপরদিকে ২১ জন ছাত্র-ছাত্রী সাধারণ বৃত্তি পেয়েছেন তারা হলেন, শাহেদ হোসাইন, মুহাম্মদ রিদওয়ান, মিশকাতুল আলম, রিদওয়ানুল হক, সাইফুল ইসলাম, নুরুল আবছার সাকিব, আব্দুল হান্নান, আলমগীর কবির, আরাফাতুল ইসলাম, মিফতাহুল জান্নাত, তাসমিন আক্তার, সুমাইয়া হোসাইন, তানজিনা সুলতানা, রেখা আক্তার, হালিমা সুলতানা, সানিয়া রহমান নুহাত, আসমা আক্তার মুন্নি, কানিজ ফাতেমা নিশাত, নাসরিন সুলতানা নিশু, সানজিদা ছামিয়া,উম্মে হাবিবা প্রমূখ। 

তা ছাড়া ৮ম শ্রেণির জে.ডি.সি পরিক্ষায় ৫ জন সাধারণ বৃত্তি লাভ করেছে।


মাদরাসার এ গৌরবোজ্জ্বল ফলাফলে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা খুবই সন্তুষ্ট প্রকাশ করেছে। শিক্ষার্থীর অভিবাবকদের অনেকে মাদ্রাসার পরিচালক এবং শিক্ষক-শিক্ষীকাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এছাড়া মাদ্রাসার শিক্ষার মান ও লেখাপড়ার সুন্দর পরিবেশ অক্ষুন্ন রাখা ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে নিয়মিত লেখাপড়ায় মনোনিবেশ সৃষ্টিতে মাদ্রাসার পরিচালকের সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ, শিক্ষকমন্ডলীর নিয়মিত পাঠদান ও নিবিড় পরিচর্যা মাদ্রাসার ধারাবাহিক সাফল্যের নেপথ্যে প্রধান ভূমিকা রাখছে বলে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা অভিমত ব্যক্ত করেন।

আরও পড়ুনঃএইচএসসি পরীক্ষার ভুয়া প্রশ্নপত্র প্রচারে আটক ৫

এ বিষয়ে মাদ্রাসার পরিচালক আলহাজ্ব কাজী মাওলানা মুহাম্মদ মনছুরুল হক বলেন, বাঁঁশখালী উপজেলায় এবছর পাসের হার কিছুটা নিচে নেমে গেছে। আমাদের টার্গেট ছিলো শতভাগ শিক্ষার্থীর বৃত্তিলাভ। কিন্তু দুর্ভাগ্য আমরা সেই টার্গেট পূরণ করতে পারিনি। আগামী দিনগুলোতে আমরা শতভাগ পাসের পাশাপাশি বৃত্তিলাভের টার্গেট নিয়ে শিক্ষার্থীদের মাদরাসায় লেখাপড়া করানোর ওপর জোর দেবো। তবে বায়তুল ইরফান মাদরাসা অতীতের ন্যায় শতভাগ পাসকরা মাদ্রাসার তালিকায় নিজেদের নাম অব্যাহত রেখেছে। মাদ্রাসার এই কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের জন্য মাদ্রাসার সাথে সংশ্লিষ্ঠ সংশ্লিষ্ঠ সকলকে ও শিক্ষকমন্ডলীকে ধন্যবাদ জানান।

, , ,
themeforestthemeforest