কোটা আন্দোলনকারীদের নিয়ে গুজব: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার থেকে সাবধান!
কোটা আন্দোলনকারীদের নিয়ে গুজব: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার থেকে সাবধান!

Be careful with the share of social media

সেবা ডেস্ক: কোটা সংস্কার আন্দোলনকে বেগবান করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে কিছু চক্রান্তকারী গোষ্ঠী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গত ২৪ ঘন্টায় চোখে পড়েছে এমন কিছু পোস্ট, যা ভীত করে তুলবে যোক্তিক কোটা সংস্কার আন্দোলনের সাথে লিপ্ত যে কাউকেই। খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, আদতে তার সবটাই গুজব। কোটা সংস্কার আন্দোলনের সাথে সংশ্লিষ্ট কিছু গ্ৰুপে দেখা যায়, কতিপয় ফেইক আইডি থেকে কিছু মানুষ এমন পোস্ট ছড়াচ্ছেন যে, যারা কোটা সংস্কার আন্দোলনের সাথে যুক্ত তাদের ছাত্রত্ব বাতিল হবে। আরো বলা হচ্ছে, এই আন্দোলনের সাথে যুক্তদের নাম গোয়েন্দা সংস্থার কাছে প্রদান করা হয়েছে।

বাস্তব অনুসন্ধানে মিলেনি এরকম কোনো তথ্য। পুলিশের একজন উর্ধতন কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হলে, তিনি জানান এর সবই বানোয়াট ও গুজব। বরং এসব গুজব ছড়াচ্ছে যারা, তারাই বরং পুলিশি নজরদারিতে থাকতে পারেন বলে মনে করছেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা। তিনি এসব গুজবে কান না দেয়ার অনুরোধ করেন সবাইকে। গোয়েন্দা সংস্থার কাছে ছাত্রদের নাম প্রদান করা হয়েছে কিনা, এমনটি জানতে চাইলে তিনি বলেন এমন কোনো বিষয় নিয়ে গোয়েন্দা কাজ করছে না।


ব্যাঙ্গের ছাতার ন্যায় গড়ে উঠা গুটিকয়েক অখ্যাত অনলাইন পোর্টালই মূলত এসব গুজবের মূল উৎস। এরকমই একটি নিউজ পোর্টালের পোস্টে দেখা যায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ২০০০ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হবে। যার সম্পূর্ণই গুজব, যার কোনো মূল ভিত্তি নেই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আখতারুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করেও এমন কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। তিনি বলেন এরকম কোন নির্দেশনা নেই।
আরও পড়ুন>>সাপাহারে প্রান্তিক ক্ষুদ্র চাষীদের মাঝে প্রনোদনার সার ও বীজ বিতরণ
পুলিশ এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অনুরোধ করেন, এসব গুজবে কান না দিতে। পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসব পোস্ট শেয়ার করে অপরকে বিভ্রান্ত না করার অনুরোধ করেন তারা।


,