মা ও শিশু মৃত্যুর হার কমাতে অপ্রয়োজনে সিজারিয়ান বিষয়ে কর্মশালা

To reduce the rate of death of mother and child

রকি সাহা, চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধি: শাহরাস্তিতে দিন ব্যাপী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রে মাতৃ মৃত্যু ও শিশু মৃত্যুর হার কমানোর জন্য অপ্রয়োজনে সিজারিয়ান বন্ধের বিষয়ে কর্মশালা বুধবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উপ সহকারি কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার মো: বাকের শরীফের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত এর মাধ্যমে দিন ব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি স্থানীয় সাংসদ সাবেক স্বরাস্ট্রমন্ত্রী মেজর (অব:) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম।
আরও পড়ুন>>চাঁদপুরে বিশ্ব রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট দিবস পালিত
সহকারি কমিশনার (ভূমি) লিটুস লরেন্স চিরানের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (অ:দ:) ডা: তানভীর আহমেদ এর সঞ্চালনায় ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে ২৪/৭ স্বাভাবিক প্রসব সেবা জোরদারকরণ বিষয় নিয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপপরিচালক ও (MCH) এর প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা: ফাহমিদা সুলতানা।


উন্মুক্ত আলোচনা করেন চাঁদপুর পরিবার পরিকল্পনা উপ-পরিচালক ডা: মো: ইলিয়াছ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাছিনা আক্তার, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মানিক লাল মজুমদার, পৌর মেয়র আলহাজ্ব আবদুল লতিফ, চাঁদপুর পরিবার পরিকল্পনা সহকারী পরিচালক মো: আমিনুল ইসলাম, চাঁদপুর বিএমএ সভাপতি মো: নুরুল হুদা. চাঁদপুর (ভারপ্রাপ্ত) সিভিল সার্জন ডা: মো: সফিকুল ইসলাম. চাঁদপুর পরিবার পরিকল্পনা উপ-পরিচালক ডা: মো: ইলিয়াছ. শাহরাস্তি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান মিন্টু, শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী হুমায়ন কবীর প্রমুখ। কর্মশালার আয়োজন করেন পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরাধীন এমসিএইচ সার্ভিস ইউনিট।


কর্মশালায় পরিবার পরিকল্পনা অধীনস্থ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে ২৪/৭ ঘন্টা চলমান নিরাপদ স্বাভাবিক প্রসব সেবাকে আরো জোরদার করার বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া হয়। মাতৃমৃত্যু ও শিশু মৃত্যুর হার কমানো নিরাপদ প্রাতিষ্ঠানিক (হাসপাতাল, ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র) প্রসবকে উৎসাহিত করার লক্ষে এই কর্মশালার আয়োজন করা হয়।
আরও পড়ুন>>আসছে রমজানে নিত্যপণ্যের বাজারে পরিবর্তন: ভোগান্তি রোধে ব্যবস্থা
এতে করে বাণিজ্যিক হাসপাতালে করা অপ্রয়োজনীয় সিজারিয়ান সেকশানের হার কমবে বলে মত দেন বক্তারা। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের এই ব্যাপারে বেশি করে এগিয়ে আসতে হবে। সরকারের দেয়া সুযোগ সুবিধা গুলি যাতে করে সাধারণ মানুষ ভোগ করতে সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে। ইউনিয়ন কমিউনিটি গুলিতে স্বাস্থ্য উপসহকারীরা ঠিকমত কাজ করে কিনা এবং উপস্থিত থাকেন কিনা সেই দিকে খেয়াল রাখবেন। এই বিষয়ে সংবাদ কর্মীরা বিশেষ ভূমিকা রাখবেন।

কর্মশালায় ইউনিয় পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার, সাংবাদিক সহ স্থানীয় এনজিও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।



, , ,
themeforestthemeforest