SebaBanner

হোম
২০১৮ সালের প্রস্তাবিত বাজেটে সর্বোচ্চ বরাদ্দ পরিবহন খাতে

২০১৮ সালের প্রস্তাবিত বাজেটে সর্বোচ্চ বরাদ্দ পরিবহন খাতে

সেবা ডেস্ক: যে কোন দেশের জীবনমান এবং অর্থনৈতিক উৎকর্ষ অনেকাংশে নির্ভর করে সে দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার উপর। ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই দেশের যোগাযোগ অবকাঠামোর উন্নয়নের উপর সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে আসছে বর্তমান বাংলাদেশ সরকার । তারই ধারাবাহিকতায় ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে পরিবহন ও যোগাযোগ খাতের জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ৫৩ হাজার ৮১ কোটি টাকা যা এবারের বাজেটে খাতভিত্তিক সর্বোচ্চ বরাদ্দ।

২০০৮-০৯ হতে ২০১৬‑১৭ অর্থবছর পর্যন্ত যোগাযোগ খাতে দেশ দেখেছে অভূতপূর্ব উন্নয়ন । মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভার, বিশ্বরোড-বিমানবন্দর সংযোগস্থল ফ্লাইওভার, মিরপুর হতে বিমানবন্দর সড়ক ফ্লাইওভার, বহদ্দারহাট ফ্লাইওভার, হাতিরঝিল প্রকল্পসহ বেশ কিছু মাইলফলকের সাক্ষী হয়েছে দেশ । নিজস্ব অর্থায়নে গড়ে তোলা হচ্ছে পদ্মা সেতুর মতো মেগা প্রকল্প। ঢাকাবাসীকে যানজটের হাত থেকে রক্ষা করতে গড়ে তোলা হচ্ছে মেট্রোরেল। এছাড়াও রেলপথ বিভাগকে স্বতন্ত্র মন্ত্রণালয়ে রূপান্তরের পাশাপাশি এ পর্যন্ত তৈরী করা হয়েছে ২৯৮ কিলোমিটার নতুন রেলপথ। ঢাকা-চট্টগ্রাম করিডোরের ২৪৯ কিলোমিটার ডাবল লাইনে উন্নীত করার হয়েছে ।২৭৬টি রেলসেতু ও ৮২টি স্টেশন বিল্ডিং নির্মাণসহ ৬২টি বন্ধ রেল স্টেশন চালু হয়েছে । পাশাপাশি মোংলা সমুদ্র-বন্দর এবং বেনাপোল, ভোমরা, নাকুগাঁও স্থলবন্দরসহ দেশের অন্যান্য সমুদ্র-নৌ-স্থল বন্দরসমূহে পড়েছে আধুনিকায়নের ছোঁয়া ।

সড়ক, রেল ও নৌপথে সরকারের সমন্বিত উন্নয়নে একদিকে যেমন জনসাধারণের যাতায়াত নির্বিঘ্ন এবং নিরাপদ হয়েছে তেমনি রপ্তানি ও অভ্যন্তরীণ বাণিজ্যের পথ সহজতর হয়েছে। প্রস্তাবিত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট দেশের পরিবহন এবং যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আরো সংহত এবং শক্তিশালী করতে সাহায্য করবে এমনটিই মনে করে দেশের মানুষ।



,

Home-About Us-Contact Us-Sitemap-Privacy Policy-Google Search