৮০ বছর বয়সেও বয়স্ক ভাতা পায় নি গুলভান বেওয়া!

৮০ বছর বয়সেও বয়স্ক ভাতা পায় নি গুলভান বেওয়া!
৮০ বছর বয়সেও বয়স্ক ভাতা পাননি গুলভান বেওয়া, ক্ষুধা মেটাতে তাই ভিক্ষা করছেন

বকশীগঞ্জ প্রতিনিধি: জামালপুরের বকশীগঞ্জে ৮০ বছর বয়স হলেও এখন পর্যন্ত বয়স্ক ভাতা জোটেনি গুলভান বেওয়ার।

নিঃশ্ব হয়ে তিনি এখন মানুুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরে জীবিকা নির্বাহ করছেন। ফলে তিনি চরম দুঃসময় ও কষ্টে দিনানীপাত করছেন।

সম্প্রীতি বকশীগঞ্জ উপজেলাকে ভিক্ষুক মুক্ত ঘোষণা করা হলেও ভিক্ষুক পুনর্বাসনে তার নাম নেই ।

বকশীগঞ্জ পৌর এলাকার পশ্চিম নামাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা গুলভান বেওয়ার স্বামী শরবত আলী ১৯৭১ সালে মারা যায়। একমাত্র ছেলে লাবলু মিয়াও নিখোঁজ হয় সে বছর। স্বামী-ছেলে হারিয়ে তিন কন্যাকে নিয়ে কোন রকমে সংসার চালাতে থাকে গুলভান বেওয়া।

বর্তমানে স্বামীর রেখে যাওয়া একখন্ড জমিতে বসবাস করছেন গুলভান বেওয়া।

অভাবের সংসারে রুজি রোজগারের পথ না থাকায় বাধ্য হয়ে বৃদ্ধ বয়সেও ভিক্ষাবৃত্তি করে সংসার চালাতে হচ্ছে তাকে।

চেয়ারম্যান, মেম্বারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও একটি বয়স্ক ভাতা কার্ডের ব্যবস্থা হয়নি তার।

তিনি জানান, ভিক্ষা করে যা পান তাই দিয়ে কোনমতে সংসার চলছে তার।

গুলভান বেওয়া একটি বয়স্ক ভাতা পেতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।



, , ,
themeforestthemeforest