রাজিবপুরের বালিয়ামারী সীমান্ত হাটে ব্যবসায়ী কার্ডে সিন্ডিকেট

রাজিবপুরের বালিয়ামারী সীমান্ত হাটে ব্যবসায়ী কার্ডে সিন্ডিকেট

শফিকুল ইসলাম, রৌমারী প্রতিনিধি: রাজিবপুরের বালিয়ামারী সীমান্ত হাটে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে ব্যবসায়ী কার্ড (ভেন্ডার কার্ড) করিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

বাবু মিয়া নামের একজন ইউপি সদস্য এ সিন্ডিকেটের হোতা বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। প্রতি ব্যবসায়ীর নিকট থেকে ৫ লাখ টাকা করে ঘুষের মাধ্যমে কার্ড করিয়ে দেবেন বলে প্রতিশ্রæতি দিয়েছেন তিনি। ইতোমধ্যে প্রত্যেকের নিকট থেকে দেড় লাখ টাকা করে অগ্রিম নেয়া হয়েছে।

এ সিন্ডিকেটের সাথে জড়িয়ে রয়েছেন একজন প্রভাবশালী আ’লীগ নেতাও। তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ম্যানেজ করে কার্ড করিয়ে দিতে ইতোমধ্যেই কুড়িগ্রামে অবস্থান করছেন। ১২ মে ভেন্ডার কার্ডের সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে বলে জানা গেছে।

সূত্র মতে, বালিয়ামারী বর্ডার হাটে বর্তমানে উভয় দেশের ৫০ জন কার্ডধারী ব্যবসায়ী রয়েছেন। ভারত ও বাংলাদেশের হাই কমিশনের সিদ্ধান্ত মোতাবেক কার্ডধারী ব্যবসায়ীর সংখ্যা বর্ধিত করে আরও ২৫ জন করে ৫০ জনের নামে ব্যবসায়ী কার্ডের অনুমোদন দেয়া হবে। ১২ মে এ ব্যাপারে কুড়িগ্রাম এডিএম কার্যলয়ে এ সম্পর্কিত সকল কার্যক্রম সমাপ্ত হওয়ার কথা।

রাজিবপুরের সদর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আজাদ খাঁ জানান, ইউপি সদস্য বাবু মিয়া জহুর আলী, ওমর আলী, আয়েল চাঁদ, জাবেদ আলী, মশিউর রহমান, চাঁদ আলী, আমজাদ হোসেন, বিল্লাল, সানোয়ার হোসেন, বাচ্চু মিয়া, শাহ আলমসহ অন্ত ২২জন মানুষের কাছে দেড় লাখ করে টাকা নিয়েছেন কার্ড পাইয়ে দেয়ার জন্য। অথচ আমরা ওই হাটের পাশেই থাকি আমাদের নামে কার্ড হয় না।

এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য বাবু মিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি টাকা নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন। এমনকি তিনি এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না বলে জানান।


⇘সংবাদদাতা: সেবা ডেস্ক

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Comments Please