পণ্য আমাদানি করতে অনুমোদন লাগবে না টিসিবি’র

TCB does not require authorization to import products
সেবা ডেস্ক: দেশের বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়লেই কোনো অনুমোদন ছাড়াই সেসব পণ্য সংগ্রহ করে নায্যমূল্যে বিক্রি করতে পারবে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)।

এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। বুধবার কমিটির আহ্বায়ক অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এতদিন শুধু চিনি, ডাল, ভোজ্যতেল, ছোলা আর খেজুর নায্যমূল্যে বিক্রি করতো সংস্থাটি। তাও এসব পণ্য সংগ্রহে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমোদনের প্রয়োজন হতো।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ বিষয়ে বলেন, ‘এ কেনাকাটায় কোনো আর্থিক সীমাবদ্ধতা নেই। তবে জাতীয়ভাবে আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় যে সমস্ত জিনিস যেমন- পেঁয়াজ, রসুন, আদা বা যেকোনো সময়, যেকোনো পণ্যের দাম বেড়ে যেতে পারে। হাঠাৎ করে যেসব পণ্যের দাম বাড়বে, সেটা টিসিবি যেখানেই পাক, সেখান থেকেই কিনে চাহিদা মেটাতে পারবে। এর জন্য সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমোদনের প্রয়োজন হবে না।’

এজন্য কোনো আইন পরিবর্তন করতে হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আইন পরিবর্তনের প্রয়োজন হবে না। তাৎক্ষণিকভাবে যেন চাহিদা মেটানো যায়, সে জন্যই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। অনেক সময় বন্যার কারণে কিছু পণ্যের সরবরাহ কমে যায়। তখন এসব পণ্য হয় আমদানি করতে হয় বা অন্যভাবে সংগ্রহ করতে হয়। কিন্তু ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক হয় সপ্তাহে একদিন। এসব পণ্য কেনার অনুমতির জন্য এ কমিটিতে আসতে সময় লেগে যাবে ১ মাস। এ জন্য টিসিবি কর্তৃপক্ষ বা মন্ত্রণালয়কে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, তারা নিজেরাই প্রয়োজনে এসব পণ্য কিনতে পারবে।’

গত ২৪ জুলাই বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে ঈদুল আজহার আগে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল রাখা এবং গবাদি পশু পরিবহন বিষয়ে অংশীজনদের নিয়ে আয়োজিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় পর্যালোচনা থেকে উঠে আসে যে, ঈদুল আজহা সামনে রেখে বাজারে পেঁয়াজ, রসুন ও আদার দাম অনেক বেড়ে গেছে। এ অবস্থায় তুলনামূলক কম দামে খোলাবাজারে ট্রাকে করে এসব পণ্য বিক্রি করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থান নিতে টিসিবিকে নির্দেশনা দেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মফিজুল ইসলাম।

এ নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৮ জুলাই থেকে ঢাকাসহ সারাদেশে ভোজ্যতেল, চিনি ও ডাল বিক্রি বিক্রি শুরু করে টিসিবি। কিন্তু অনুমতি না থাকায় সংস্থাটি পেঁয়াজ, রসুন ও আদা বিক্রির কার্যক্রম শুরু করতে পারেনি। এখন এসব পণ্য বিক্রিতেও আর সমস্যা থাকছে না।

 -সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0 comments

Comments Please