ঘুষ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে শূন্য নীতি অনুসরণ করছে দুদক- চেয়ারম্যান

The ACC chairman is following a zero policy against bribery and corruption
সেবা ডেস্ক: দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশ সরকার যেভাবে ঘুষ-দুর্নীতির বিরুদ্ধে শূন্য সহিষ্ণুতার নীতি অনুসরণ করছে, দুদক ঠিক একই নীতি বাস্তবায়ন করছে।

সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ের সামনে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। এর আগে সোমবার সকালে ঠাকুরগাঁওয়ে সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. আনিসুর রহমান ও একই অফিসের অফিস সহকারী মো. জুলফিকারকে ৫০ হাজার টাকা ঘুষসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার সকাল সাড়ে নয়টায় দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় দিনাজপুরের একটি বিশেষ টিম তাদেরকে গ্রেফতার করে।

গত ১ অক্টোবর সরকারি কর্মচারী আইন কার্যকর হয়েছে। এই আইন অনুযায়ী সরকারের অনুমতি ছাড়া সরকারি কর্মচারীকে গ্রেফতার করা বেআইনি। এ অবস্থায় দুদক দুই সরকারি কর্মচারীকে কীভাবে গ্রেফতার করলো, এমন প্রশ্ন ছিল দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদের কাছে।

এসময় দুদক চেয়ারম্যান বলেন, আমার যতটা মনে আছে, সরকারি কর্মচারী আইনে বলা হয়েছে- ‘সরকারি দায়িত্ব’ পালনকালে যদি কোনও ফৌজদারি মামলা হয়, তবে চার্জশিট না হওয়া পর্যন্ত তাদেরকে সরকারের অনুমতি ছাড়া গ্রেফতার করা যাবে না।’ ইকবাল মাহমুদ সাংবাদিকদের পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘‘ঘুষ আদান-প্রদান কি ‘সরকারি দায়িত্ব’? ঘুষ খাওয়া কি ‘সরকারি দায়িত্বের’ মধ্যে পড়ে?

তিনি বলেন, দুদক আইনের প্রতি সর্বোচ্চ শ্রদ্ধাশীল। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, ঘুষ খাওয়া ‘সরকারি দায়িত্ব’ নয়। এখানে ভুল বুঝাবুঝির কোনো অবকাশ নেই। জাতীয় সংসদে যেসব আইন পাস হয়, তার প্রতি সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা রেখেই দায়িত্ব পালন করছে দুদক।

 -সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0 comments

Comments Please