জামালপুরে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেপ্তার

জামালপুরে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেপ্তার

সেবা ডেস্ক:  জামালপুরে সদর উপজেলায় স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে গাড়িচালক স্বামী মো. বকুল মিয়াকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে বিক্ষুব্ধ জনতা। নিহত গৃহবধূর নাম রূপালী বেগম। তিনি শেরপুর সদর উপজেলার পক্ষীমারী ইউনিয়নের সাতপাকিয়া গ্রামের মৃত মোশারফ হোসেন লাভলুর মেয়ে। ২১ মে ভোররাতে জামালপুর শহরের পূর্ব মুকুন্দবাড়ি এলাকায় তাদের ভাড়াবাসায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, শেরপুর সদর উপজেলার চরপক্ষীমারী ইউনিয়নের বাহেজ উদ্দিনের ছেলে বকুল মিয়া পরকিয়ার জের ধরে বছর দশেক আগে তার সহোদর বড় ভাইয়ের স্ত্রী রূপালী বেগমকে (৩২) বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকেই এই দম্পতি জামালপুর শহরের পূর্ব মুকুন্দবাড়ী এলাকায় জনৈক আনোয়ার হোসেনের বাসায় ভাড়া থাকেন। বিয়ের পর থেকেই বকুল মিয়া বরিশালে গিয়ে ট্রাক্টর চালাতেন। থাকতেন টানা দুই-তিন সপ্তাহ ধরে। বাড়িতে এলেই নানান অযুহাতে স্ত্রী রূপালী বেগমকে নির্যাতন করতেন। একপর্যায়ে বকুল মিয়া তার বিধবা শাশুড়ি সনেখা খাতুনকে চাপ দিয়ে দেড় লাখ টাকার যৌতুকও নেন। কিন্তু এতেও বকুল মিয়ার মন ভরেনি। পুনরায় টাকার জন্য স্ত্রীকে নির্যাতন করে আসছিলেন। তাদের সংসারে তিন বছরের এক ছেলে রয়েছে।

পারিবারিক এই ধারাবাহিক কলহের জের ধরে বকুল মিয়া ২১ মে ভোর রাতে ঝড়-বৃষ্টির সময় স্ত্রী রূপালী বেগমকে পিটিয়ে এবং গলায় বিদ্যুতের তার পেঁচিয়ে শ্বাস রোধ করে হত্যা করে ঘটনা ভিন্ন খাতে নেয়ার চেষ্টা করেন। ভোর সোয়া ৫টার দিকে বকুল মিয়া পাশের বাড়ির লোকজনদের ডেকে নিয়ে বলেন তার স্ত্রী বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছেন। কিন্তু প্রতিবেশীরা টের পেয়ে বকুল মিয়াকে আটক করে সদর থানায় খবর দেন। সদর থানায় উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. জহিরুল ইসলাম পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে বকুল মিয়াকে আটক করেন। পুলিশ মেঝেতে পড়ে থাকা রূপালী বেগমের মরদেহের গলায় ও হাতেসহ বিভিন্ন স্থানে নির্যাতনের চিহ্ন পেয়েছেন। তাকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে পুলিশ ও নিহতের পরিবারের স্বজনরা ধারণা করছেন। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সালেমুজ্জামান এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘নিহত গৃহবধূর বিধবা মা সনেখা খাতুন বাদী হয়ে আটক বকুল মিয়াকে একমাত্র আসামি করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে বিকেলে তাকে আদালতের মাধ্যমে জামালপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।’
 

ভিডিও নিউজ


-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন


,