কাজিপুরে খোরাকী ভাতা বঞ্চিত এক শিক্ষকের মানবেতন জীবনযাপন

কাজিপুরে খোরাকী  ভাতা বঞ্চিত এক শিক্ষকের মানবেতন জীবনযাপন

কাজিপুর প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার ৫৬ নং বিলদরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক সহকারি শিক্ষক খোরাকী ভাতা না পেয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন।  মহামান্য হাইকোর্ট ওই শিক্ষককে খোরাকীভাতা প্রদানের জন্যে রায় দিলেও এখনও তিনি তা পাননি।
কাজিপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী শিক্ষক রেজাউল করিমকে একটি মামলার কারণে বরখাস্ত করা হয়। তখন ওই শিক্ষক মহামান্য হাইকোর্টে খোরাকীভাতা চেয়ে দরখাস্ত করলে তা মঞ্জুর হয় এবং তিনি মামলা চলাকালিন সময়ে খোরাকী ভাতা পাচ্ছিলেন।
কিন্তু গত ২০১৮ সালে জুলাই মাস থেকে খোরাকীভাতা বন্ধ করে দেয়া হয়। তখন ওই শিক্ষক আবারো হাইকোটে এ বিষয়ে রিট পিটিশন করলে  গত ১৬ জুন ২০১৯ তারিখে মহামান্য হাইকোর্ট তা মঞ্জুর করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে খোরাকী ভাতা প্রদানের নির্দেশ দেন। ওই বছরের ২৭ নভেম্বর প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনের  অনুমোদন দেন।
ওই সময় কাজিপুর  উপজেলা শিক্ষা অফিসার আমজাদ হোসেন এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন তৈরি করে খোরাকী ভাতা প্রদানের জন্যে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর পত্র প্রেরণ করেন। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে শিক্ষক রেজাউল করিম এখনও অবধি ভাতা না পেয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন।
এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আমজাদ হোসেন জানান, ‘আমি কাগজ তৈরি করে পাঠিয়েছিলাম। কিন্তু জানতে পারলাম ওই শিক্ষকের আরও একটি মামলা থাকায় তিনি খোরাকি ভাতা পাচ্ছেন না।’ রেজাউল করিম বলেন, ‘ মামলা চলাকালিন খোরাকীভাতা না পেয়ে  এখন চরম দুর্দশার মধ্যে রয়েছি। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট আমি অবিলম্বে খোরাকী ভাতা চালুর অনুরোধ জানাচ্ছি।’


ভিডিও নিউজ


-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন


,

0 comments

Comments Please

আপনার মূল্যবান মতামতের জন্য সেবা হট নিউজ পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

সেবা হট নিউজ : সত্য প্রকাশে আপোষহীন