উল্লাপাড়ায় আবারও মহিলা কর্মীর শ্লীলতাহানী ও কাউন্সিলর প্রার্থীকে মারপিট

উল্লাপাড়ায় আবারও মহিলা কর্মীর শ্লীলতাহানী ও কাউন্সিলর প্রার্থীকে মারপিট


উল্লাপাড়া প্রতিনিধি: উল্লাপাড়ায় আবারও কাউন্সিলর প্রার্থী ওয়াহিদুল আলম খান লিমনের টেবিল ল্যাম্প মার্কার মিছিলে মহিলা কর্মীর শ্লীলতাহানী ও কাউন্সিলর প্রার্থীকে মারপিটের অভিযোগ  উঠেছে। বুধবার সন্ধ্যায় পৌর শহরের এইচটি ইমাম ডিগ্রি কলেজ মাঠে মেয়র প্রার্থী এস. এম নজরুলের নৌকা মার্কার উঠান বৈঠকে যোগ দেওয়ার সময় প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থী শাহ আলম ও তার সমর্থকদের মারপিটের স্বীকার হন কাউন্সিলর প্রার্থী লিমন। এতে কাউন্সিলর প্রার্থী লিমনসহ ৩ মহিলা কর্মী আহত হন। এ ঘটনায় লিমন ৮ জনের বিরুদ্ধে আবারও অভিযোগ দায়ের করেছেন থানায়। 

ওয়াহিদুল আলম খান লিমন অভিযোগে বলেন, উল্লাপাড়া এইচটি ইমাম ডিগ্রী কলেজ মাঠে বুধবার সন্ধ্যায় মেয়র এস. এম নজরুল ইসলামের নৌকা মার্কার উঠান বৈঠকে লিমন তার নির্বাচনী প্রতীক টেবিল ল্যাম্প মার্কার কর্মী-সমর্থকদের মিছিল নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় যোগ দিতে যায়। এ সময় কলেজের প্রবেশ পথে অপর উট মার্কা প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থী আজিজুল ইসলাম শাহ আলমের সমর্থকেরা লিমনের টেবিল ল্যাম্প মার্কার মিছিলে অংশ গ্রহনকারী মহিলা কর্মীদের পথরোধ করে দাড়ায় এবং অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ ও খারাপ অঙ্গভঙ্গি করতে থাকে। তাতে লিমন বাধা দিলে তার প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থী আজিজুল ইসলাম শাহ আলমের ৭- ৮ জন সমর্থক লিমনকে বেদম মারপিট করে এবং মিছিলের মহিলা কর্মীদেরকে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা চালায়। হামলাকারীরা এলোপাথারি কিল- ঘুষি ও মারপিট করিয়া কাউন্সিলর প্রার্থী লিমনের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছিলা ফুলা ও জখম করে। এ সময় তার শরীরের পোষাক টানা হেছরা করিয়া ছিরিয়া ফেলে। মিছিলে অংশগ্রহনকারী মহিলা কর্মীরা লিমনকে উদ্ধার করতে এগিয়ে এলে তাদের পরনের পোষাকও টানা হেছরা করিয়া শ্লীলতাহানি করার চেষ্টা করে প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থী শাহ আলমের সমর্থকেরা। এতে কাউন্সিলর প্রার্থী লিমনসহ মমতা, শংকরী ও বিউটি নামের ৩ মহিলা কর্মী আহত হয়। আহতদের স্থানীয় ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনার পর এলাকার সাধারণ ভোটারদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। 

লিমন আরোও অভিযোগ করেন, ইতিপূর্বে তার টেবিল ল্যাম্প মার্কার মিছিলের ছবি ও ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোষ্ট করলে প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থী শাহ আলমের ছাইলেন্ট ইমরান খান নামের আইডির সমর্থক উক্ত ফেসবুক পোষ্টে তার মহিলা কর্মীদের প্রতি অনৈতিক ও আপত্তিকর ভাষা ব্যবহার করে তাতে কমেন্ট করে। 

এ বিষয়ে রিটানিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, সিরাজগঞ্জ বরাবর লিমন তার লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।   
 এ ব্যাপারে উল্লাপাড়া সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার মোঃ মাহফুজ হোসেন মুঠোফোনে জানান, অভিযোগের আলোকে তদন্ত করে ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। 
আগামী ১৬ জানুয়ারি উল্লাপাড়া পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৩৪,৫০৩ জন। পুরুষ ভোটার ১৭,১৪৯ জন, মহিলা ভোটার রয়েছেন ১৭,৩৫৪ জন। ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ১৭ টি কেন্দ্রে উল্লাপাড়া পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।