গৃহবধূকে আগুনে ঝলসানোর ঘটনায় গাইবান্ধায় আটক স্বামী ও শাশুড়ি

গৃহবধূকে আগুনে ঝলসানোর ঘটনায় গাইবান্ধায় আটক স্বামী ও শাশুড়ি


আশরাফুল ইসলাম গাইবান্ধা : গাইবান্ধা সদর উপজেলায় গৃহবধূকে আগুনে ঝলসিয়ে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখার ঘটনায় স্বামী ও শাশুড়িকে আটকের খবর পাওয়া গেছে। 

গত ২৩ মার্চ পারিবারিক কলহের জেড়ে গৃহবধূ শারমিন বেগমকে (২১) আগুন দিয়ে শরীরের ৮০ ভাগ ঝলসানোর অভিযোগ ওঠে স্বামী ও তার স্বামীর পরিবারের বিরুদ্ধে। 

২৪ মার্চ বুধবার দুপুর ১টার দিকে জেলা সদরের মালিবাড়ি ইউনিয়নের কাবিলের বাজার এলাকার নিজ বাড়ি থেকে শাশুড়ি কুলসুম ও ছেলে কোরবান আলীকে আটক করে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেন সদর থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মাহফুজার রহমান।

থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার রাতে পারিবারিক কলহের জেরে স্বামী কোরবান আলী উত্তেজিত হয়ে স্ত্রীর পড়নের কাপড়ে ম্যাচ লাইটার দিয়ে আগুন ধরে দেয়। 

এরপর তাকে দরজা বন্ধ করে রাখে। এতে গৃহবধূ শারমিনের শরীরের প্রায় ৮০ ভাগ পুড়ে যায়। 

ঘটনার পর স্থানীয়রা গৃহবধূকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করায়। বর্তমানে ওই গৃহবধূ রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এলাকাবাসী আরো জানায়, গত দুই বছর আগে একই এলাকার শফিউল ইসলামের মেয়ে শারমিনের সাথে ইসমাইল হোসেনের ছেলে কোরবান আলী বিয়ে হয়। 

বিয়ের পর থেকে যৌতুক নিয়ে স্বামীর পরিবারের সাথে কলহ হতে থাকে। 

ঘটনার দিন দুপুরে বিষয়টি নিয়ে ঝগড়া শুরু হলে রাতে স্বামী স্ত্রীর কাপড়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।

এ ঘটনায় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, ঘটনার সত্যতা উদঘাটনের চেষ্টা চলছে। শারমিনের স্বামী কোরবান আলী ও শাশুড়ি কুলসুমকে আটক করা হয়েছে। ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষে মামলার প্রস্তুতি চলমান রয়েছে।  



শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।