ধুনটে হত্যা ও মাদকসহ ৯ মামলায় যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

ধুনটে হত্যা ও মাদকসহ ৯ মামলায় যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

রফিকুল আলম,ধুনট (বগুড়া): বগুড়ার ধুনট উপজেলায় হত্যা, মাদক ও জুয়া সহ বিভিন্ন অভিযোগে করা ৯টি মামলার পলাতক আসামী সোহরাব হোসেন (৩৭) নামে যুবলীগের এক নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সোহরাব হোসেন ধুনট পৌর এলাকার সদরপাড়ার আব্দুর রহমানের ছেলে এবং পৌর যুবলীগের সাবেক সভাপতি। গত ৭ বছরে তার বিরুদ্ধে বগুড়া সদর ও ধুনট থানায় ৯টি মামলা দায়ের হয়েছে। সর্বশেষ মাদ্রকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে করা একটি মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। মাদক বিক্রির অভিযোগে কয়েক দফা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়ায় সোহরাব হোসেনকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।  

মামলা সূত্রে জানা যায়, সোহরাব হোসেনকে ২০১৪ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত একটি খুনের মামলায় ও মাদকসহ একধিকবার গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়। আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে সোহরাব আবারো মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ে। গত ১৯ এপ্রিল রাতে সোহরাব ও তার ভাই উপজেলা যুবলীগের সহসম্পাদক ফোরহাদ হোসেন (৪০) মাদক দ্রব্য বিক্রি করতে থাকে। এসময় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ফোরহাদ হোসেনকে মাদক দ্রব্য সহ গ্রেফতার করে পুলিশ। এসময় সোহরাব হোসেন কৌশলে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে সোহরাব হোসেনে ও ফোরহাদ হোসেনের বিরুদ্ধে থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করে। পরে ফোরহাদ হোসেনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। ঘটনার পর থেকে সোহরাব হোসেন পলাতক ছিল। শুক্রবার সকালে বাড়িতে ফিরে এলে পুলিশ সোহরাব হোসেনকে গ্রেফতার করে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, সোহরাব হোসেন এলাকায় একজন চিহ্নিত মাদক কারবারি। তাকে মাদকসহ একাধিকবার গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলাসহ ৯টি মামলা রয়েছে। বিকেলের দিকে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।
  


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।