৭০ বছর বয়সী নারীকে উদ্ধার করলেন যুবলীগ নেতা

উল্লাপাড়ায় করতোয়ায় ভেসে যাওয়া ৭০ বছর বয়সী নারীকে উদ্ধার



উল্লাপাড়া প্রতিনিধি :  করতোয়া নদীতে গোসল করার সময় ঝড়ের বাতাসে আসা কচুরী ধাপের চাপে ভেসে যায় ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধা নারী সালেকা বেগম। সাঁতার না জানা সালেকা কোন রকম কচুরীর ধাপ ধরে ভেসে যেতে থাকেন। কিছু দুর গেলে নদীতে খাঁচায় এক মাছ চাষি বৃদ্ধের কন্ঠে কচুরীর মধ্যে বাঁচাও বাঁচাও চিৎকার শুনতে পান। স্থানীয় মাছ চাষি কৃষকলীগ নেতা গোলাম কিবরিয়া আলম তার ডাকে সারা দিয়ে সালেকা বেগমকে উদ্ধার করার চেষ্টা চালান। নৌকা জোগাড় করে প্রায় ১ ঘন্টার প্রাণপন চেষ্টায় উদ্ধার করা হয় সালেকাকে। ঘটনাটি ঘটেছে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার সলপ ইউনিয়নের বড় জুমলা গ্রামের পাশ দিয়ে বহমান করতোয়া নদীতে।

উদ্ধারকারী বড় জুমলা গ্রামের গোলাম কিবরিয়া আলম জানান, শুক্রবার দুপুরে ঝড়ের সময় করতোয়া নদীতে তার খাঁচায় মাছ চাষ দেখভাল করছিলেন।  এমন সময় নদীতে ভেষে আসা বিশাল কচুরীর ধাপের মধ্যে বাঁচাও বাঁচাও চিৎকার শুনতে পান। তখন পাশে থাকা নৌকা নিয়ে তিনি ও তার ছেলে চঞ্চলকে সঙ্গে নিয়ে ভেষে যাওয়া বৃদ্ধা সালেকা বেগমকে উদ্ধার করে প্রাণে বাঁচান। সালেকা বেগম সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার মশিপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি এই গ্রামে তার মেয়ের জামাই বাড়ীতে বেড়াতে এসেছিলেন।

উদ্ধার হওয়া সালেকা জানান, আমি সাঁতার জানি না। গোসলে নদীতে নামার পড় ঝড়-বাতাস উঠে আসে। এ সময় ভাসোমান কচুরী ধাপের চাপে আমি ভেষে যাই। পরে আমার চিৎকারে গ্রামের গোলাম কিবরিয়া আলম ও তার পুত্র চঞ্চল আমাকে উদ্ধার করেন। আমি আল্লাহ ও তাদের কাছে শুকরিয়া জানাই। 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।