ধুনটে পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় স্ত্রীকে পোটালো স্বামী

ধুনটে পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় স্ত্রীকে পোটালো স্বামী



রফিকুল আলম,ধুনট (বগুড়া): পরকীয়া প্রেমে বাধা দেওয়ায় বগুড়ার ধুনট উপজেলায় তানজিনা খাতুন নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে আহত করেছে তার স্বামী। তানজিনা উপজেলার নসরতপুর গ্রামের মৃত হবিবর রহমান তালুকদারের মেয়ে। এ ঘটনায় আহত গৃহবধূ বাদি হয়ে স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে থানা অভিযোগ দিয়েছে। উপজেলার চৌকিবাড়ি ইউনিয়নের পেঁচিবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পেঁচিবাড়ি গ্রামের হযরত আলীর ছেলে শরীফুল ইসলামের সাথে প্রায় ১০বছর আগে তানজিনার বিয়ে হয়। বিয়ের পর সুখেই কাটতেছিল তাদের দাম্পত্য জীবন। কিন্ত এ সুখ বেশী দিন টেকেনি তানজিনার ভাগ্যে। বিয়ের কয়েক বছর পরই শরীফুল পার্শ্ববতী গ্রামের এক নারীর সাথে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে।

এ বিষয়টি টের পাওয়ার পর স্বামীকে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক থেকে ফেরাতে পারেনি তানজিনা। স্বামীর হাতে অনেক নির্যাতন সইয়েও তানজিনা ব্যর্থ হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে উভয় পরিবারের মাঝে কয়েক দফা বৈঠক হলেও কোন কাজ হয়নি।

পরকীয়ার বিষয়টি নিয়ে ২১ মে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তানজিনাকে পিটিয়ে আহত করে তার স্বামী। সংবাদ পেয়ে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় তানজিনা বাদি হয়ে স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে শনিবার থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছে।

এ বিষয়ে শরীফুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া-বিবাদের এক পর্যায়ে স্ত্রীকে শাসন করেছি। পরকীয়ার ঘটনা সঠিক না। তারপরও আমি সহ আমার মা-বাবার বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ভাবে সমঝোতার চেষ্টা করা হচ্ছে।

ধুনট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগটি তদন্ত করা হচ্ছে। এছাড়া বিষয়টি নিয়ে উভয় পরিবারের মধ্যে সমঝোতার চেষ্টা চলছে। তবে সমঝোতা না হলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।