২৩মে, বঙ্গবন্ধুর জুলিও কুরি শান্তি পদক ও বিশ্ববন্ধু খেতাব অর্জন

২৩মে, বঙ্গবন্ধুর জুলিও কুরি শান্তি পদক ও বিশ্ববন্ধু খেতাব অর্জন



সেবা ডেস্ক: আজ ২৩ মে, ১৯৭৩ সালের এই দিনে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জুলিও কুরি শান্তি পুরস্কার অর্জন করেন। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিভিন্ন অবদান রাখার জন্য ১৯৭৩ সালের ২৩ মে তাঁকে বিশ্বশান্তি পরিষদ কর্তৃক ‘জুলিও কুরি’ শান্তি পদকে ভূষিত করা হয় বঙ্গবন্ধুকে। এই পদক লাভ বাঙালি জাতির জন্য এক বড় প্রাপ্তি ছিল। ১৯৫০ সালে থেকে বিশ্ববিখ্যাত বিজ্ঞানী ম্যারি কুরি ও পিয়েরে কুরি দম্পতিকে সম্মান জানানোর জন্য এই পদকের সূচনা হয়। বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় ম্যারি কুরি ও পিয়েরে কুরি দম্পতির সংগ্রামী অবদানকে স্মরণীয় করে রাখতে বিশ্বশান্তি পরিষদ এই পদক চালু করেছিল। তাঁরই ধারাবাহিকতায় আজও এই পদক চলমান।   

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ এ পর্যন্ত এই পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন নেলসন ম্যান্ডেলা, ইন্দিরা গান্ধী, ফিদেল কাস্ত্রো, হো চি মিন, ইয়াসির আরাফাত, সালভেদর আলেন্দে, মাদার তেরেসা, পাবলো নেরুদা, জওয়াহেরলাল নেহরু, মার্টিন লুথার কিংসহ অনেক বিখ্যাত ব্যক্তি। বঙ্গবন্ধু সহ যারা এই পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন তাঁরা সবাই-ই বিভিন্ন দেশের নেতৃত্বে বড় ধরণের ভূমিকা রেখেছিলেন। 

বিশ্বশান্তি পরিষদের শান্তি পদক ছিল জাতির পিতার কর্ম ও প্রজ্ঞার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি। এটি ছিল বাংলাদেশের জন্য প্রথম আন্তর্জাতিক সম্মান।  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এই পুরস্কার/পদক আপামর বাঙালির জন্য এক বিরাট অর্জন। এ মহান অর্জনের সালে জাতির পিতা পরিণত হন বঙ্গবন্ধু থেকে বিশ্ববন্ধু। 

২০১৯ সালের ১৫ আগস্ট জাতিসংঘ সদর দপ্তর আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘বিশ্ববন্ধু’ (ফ্রেন্ড অব দ্য ওয়ার্ল্ড) হিসেবে আখ্যা দেন সংস্থাটির সাবেক আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল ও জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত আনোয়ারুল করিম চৌধুরী। বৈশ্বিক পরিম-লে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়া এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বিশ্বনেতা হিসেবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদানের প্রেক্ষিতে তাঁকে “বিশ্ববন্ধু (ফ্রেন্ড অব দ্য ওয়ার্ল্ড)" উপাধিতে ভূষিত করায় আমরা অত্যন্ত আনন্দিত।

বাঙালী জাতিরাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা ও স্বাধীনতার স্থপতি, অসাম্প্রদায়িকতা, গণতন্ত্র ও শান্তি আন্দোলনে জাতির পিতার অসামান্য অবদানের প্রেক্ষিতেই বঙ্গবন্ধুকে ‘জুলিও কুরি শান্তি পদকে ভূষিত করা হয়। ১৯৫০ সাল থেকে বিশ্ব শান্তি পরিষদ ফ্যাসিবাদ-সাম্রাজ্য বাদবিরোধী সংগ্রামে, মানবতার কল্যাণে, শান্তির সপক্ষে বিশেষ অবদানের জন্য বরণীয় ব্যক্তি ও সংগঠনকে ‘জুলিও কুরি’ শান্তি পদকে ভূষিত করে থাকে। দেশবাসী এখন আশায় রয়েছে খুব দ্রুতই বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ভবিষ্যতে এ পদকে ভূষিত হবেন কারণ তিনিও বঙ্গবন্ধুর মত মানুষের মুক্তি ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় বিরামহীন কাজ করে যাচ্ছেন।

 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।