সংস্কারাধীন রাস্তার পাশ ঘেঁষে মাটি কর্তনে ঝুঁকির আশঙ্কা

সংস্কারাধীন রাস্তার পাশ ঘেঁষে মাটি কর্তনে ঝুঁকির আশঙ্কা


কাজিপুর প্রতিনিধি: কাজিপুরের গান্ধাইল খামারপাড়া হয়ে গান্ধাইল বাজার পর্যন্ত ৩ হাজার ২১৫ মিটার সংস্কারাধীন রাস্তার পাশ ঘেঁষে ঠিকাদার মাটি কেটে নিয়েছেন। 

সেখানে সামান্য জায়গায় গাইডওয়াল থাকলেও অনেকখানি ওয়ালবিহিন অংশ রয়েছে। এর ফলে আসন্ন বর্ষা মৌসুমে ওই রাস্তাটি ক্ষতিগ্রস্ত হবার সম্ভাবনা রয়েছে বলে স্থানীয় বাসিন্দাগণ জানিয়েছেন। গত বুধবার (৫মে ) সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে রাস্তার কাজ চলমান রয়েছে। 

 কাজিপুর উপজেলা প্রকৌশল অফিস সূত্রে জানা গেছে, এলজিইডি অফিসের বাস্তবায়নে ওই রাস্তাটি মেরামতের জন্যে ১ কোটি ৪১ লক্ষ টাকা ব্যয় বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।  মুন্না এন্টার প্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মূল ঠিকাদারের নিকট থেকে ক্রয় করে  কাজটি বাস্তায়ন করছে।  

সংস্কারাধীন গান্ধাইল গ্রামের ওই  রাস্তার কয়েকটি স্থানে পুকুর ও ডোবা রয়েছে। কাজের সিডিউল ও দরপত্রে অংশগ্রহণ করা একাধিক ঠিকাদার জানান,  রাস্তার পাশের ডোবা ও পুকুরের স্থানে  প্রয়োজনীয়  প্যালাসাইডিং ও রেইজিং এর বাইরেও ৩ ফুট করে মাটি ফেলার জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ রাখা হয়েছে।  

  রাস্তাটিতে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ঠিকাদার  বাইরে থেকে মাটি  না এনে রাস্তার পাশ ঘেঁষে কোথাও কোথাও  প্যালাসাইডিং এর গোড়া ঘেঁসে  মাটি কাটা তুলেছেন। এ  কারণে রাস্তা ঘেঁষে  গভীর খাদের সৃষ্টি হয়েছে। এমতাবস্থায় স্থানীয় সচেতন মহল রাস্তাটি  বৃষ্টি বাদলে ধসে পড়ার আশঙ্কা করছেন।  তাছাড়া ওই ঠিকাদার নির্মানাধীন রাস্তার খামারপাড়া নামক স্থানে পুরাতন পাইলিং তুলে নিয়ে গেছেন। সেখান নতুন করে আর কিছু করেননি। রাস্তাটি সংস্কারে নিম্মমানের জিনিসপত্র ব্যবহার করছেন বলেও একাধিক ব্যক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন। 
 কাজিপুর এলজিইডি অফিসের দায়িত্বরত উপসহকারি প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ জানান, ‘কাজটি চলমান রয়েছে।  ঠিকাদার অনিয়ম করলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’  
  



শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।