ধুনটে গরু চুরির মামলায় যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

ধুনটে গরু চুরির মামলায় যুবলীগ নেতা গ্রেফতার



রফিকুল আলম,ধুনট (বগুড়া): বগুড়ার ধুনট উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম থেকে ৭টি গরু চুরির মামলায় সাজিদুল ইসলাম সুজন (৩৫) নামে যুবলীগের এক নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সুজন উপজেলার কৈয়াগাড়ি গ্রামের রেফাজ উদ্দিনের ছেলে। সে ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক আহবায়ক।

শুক্রবার দুপুরের পর ধুনট থানা থেকে তাকে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার গোসাইবাড়ি বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।  

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সাজিদুল ইসলাম সুজন দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় চুরি, ছিনতাই সহ বিভিন্ন অপরাধ মুলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িয়ে পড়েছে। গত ২৪ মে রাতে উপজেলা উল্লাপাড়া থেকে ২টি, এলাঙ্গী থেকে ২টি ও পাকুড়িহাটা গ্রাম থেকে ৩টি গরু চুরি করেছে সুজন। এ ঘটনায় উল্লাপাড়া গ্রামের আশাদুল হক বাদি হয়ে ২৭ মে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

এ ছাড়াও ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়ন এলাকা থেকে ৩টি দোকানের মালামাল ও স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের  ১টি কম্পিউটার, ১টি ল্যাপটপ, ২টি প্রিন্টার এবং আইপিএসের ব্যাটারীসহ প্রায় ৩ লাখ টাকার সামগ্রী চুরির ঘটনায় সন্দেহের তীর সুজনের দিকে। থানা পুলিশ ২২জুন সুজনের বাড়ি থেকে বিভিন্ন স্থান থেকে চুরি করা বেশ কিছু মালামাল জব্দ করেছে। এ ঘটনার পর থকে সুজন পলাতক ছিল।

উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ বলেন, অনেক দিন আগে মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের অভিযোগে সাজিদুল ইসলাম সুজনকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। বর্তমানে দলের সাথে সুজন জড়িত নেই।  

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, গরু চুরির মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সুজনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তবে এলাকার অন্যান্য চুরির ঘটনার সাথে জড়িত আছে কিনা তা খাতিয়ে দেখা হচ্ছে। 

শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।