আনোয়ারা-বাঁশখালীর জেলেদের বিরোধ নিরসণে দু'পক্ষের সমঝোতা বৈঠক

আনোয়ারা-বাঁশখালীর জেলেদের বিরোধ নিরসণে দু'পক্ষের সমঝোতা বৈঠক



শিব্বির আহমদ রানা, বাঁশখালী প্রতিনিধি, চট্টগ্রাম: বঙ্গোপসাগরে জাল বসানোকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রামের আনোয়ারা ও বাঁশখালী উপজেলার জেলেদের মধ্যে সৃষ্ট বিরোধের ঘটনায় দুই উপজেলা প্রশাসনের মধ্যে সমঝোতা বৈঠক হয়েছে। 

বুধবার (২৫ আগস্ট) দুপুরে আনোয়ারা উপজেলার শোলকাটার লাবিবা কনভেনশন হলে দুই উপজেলার প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে দুই পক্ষের মধ্যে এ সমঝোতা বৈঠক হয়। 

বৈঠকে সাগরে জাল বসানোর ব্যাপারে সা¤প্রতিক বিষয়াদি নিয়ে ইতিবাচক আলোচনা হয়েছে বলে জানা যায়।

এসময় সমাঝোতা বৈঠকে আনোয়ারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী, বাঁশখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চৌধুরী মোহাম্মদ গালিব সাদলী, আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমেদ, বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইদুজ্জামান চৌধুরী, সহকারী পুলিশ সুপার (আনোয়ারা সার্কেল) মু.হুমায়ুন কবির, আনোয়ারা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) তানভীর হাসান চৌধুরী, বাঁশখালী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) মুু. মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী, আনোয়ারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম দিদারুল ইসলাম সিকদার, বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শফিউল আলম, রায়পুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জানে আলম ও খানখানাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বদর উদ্দিনসহ দুই উপজেলার মৎস্যজীবী প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে দুই উপজেলার জেলেরা সমন্বয় করে সাগরে জাল বসাবেন এমন সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। এতে প্রতিজন জেলে ১৩টি করে জাল বসাতে পারবেন। 

প্রতিটি জাল ৩০০ মিটার দুরত্ব রেখে বসাতে হবে। আগামী ১৫ নভেম্বর দুই উপজেলার প্রশাসন জনপ্রতিনিধিরা সাগরে সরেজমিনে গিয়ে বিষয়টি নিস্পত্তি করবে।

উল্লেখ্য, গত ৩ ও ৪ আগষ্ট সাগরে জাল বসানোকে কেন্দ্র করে আনোয়ারা এবং বাঁশখালী উপজেলার জেলেদের মধ্যে বিরোধের জেরে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। 

এতে বাঁশখালী উপজেলার খানখানাবাদ এলাকার মোহাম্মদ নাছির (৩০) নামের এক জেলে নিহত হন আহত হয় অন্তত ২১ জন জেলে।

 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।