রুকনাই উচ্চ বিদ্যালয়ে গোপন নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিলের দাবী

রুকনাই উচ্চ বিদ্যালয়ে গোপন নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিলের দাবী



লিয়াকত হোসাইন লায়ন, জামালপুর প্রতিনিধি: নিয়োগ প্রক্রিয়া না করেই জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার রুকনাই উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং সভা করে প্রার্থী চুড়ান্তের পায়তারায় ক্ষুব্দ হয়ে উঠেছে এলাকাবাসীর। সরকারী নিয়মানুসারে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার দাবী জানান। 

জানা গেছে- রুকনাই উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং গোপনে অফিস সহকারী পদে সফিউল্লাহ সুইট, অফিস সহায়ক পদে লিয়াকত হোসেন লিটন, আয়া পদে কনিকা ও পরিচ্ছন্নকমী পদে খোকন মিয়াকে চুড়ান্ত  করেছেন।

রুকনাই গ্রামের নান্ড্ ামোল্লা,আক্তার হোসেন জানান- ম্যানেজিং কমিটির চারজনকে কোন সার্কুলার ছাড়াই চড়ান্ত করেছে তা অবৈধ,সৈরাচারী পন্থা। আমরা প্রতিষ্ঠানের সুনামের স্বার্থে এই অবৈধ নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিলের দাবী জানাই। 

আব্দুল কুদ্দুস মজনু জানান-বিদ্যালয়ে আমাদের অবদান রয়েছে। আমার বাবা জমি দাতা,বর্তমান কমিটির বাণিজ্য বন্ধ না হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হবে। চাইনিজ মোল্লা,সুলতান আকন্দ সহ অন্যান্যরা জানান- দ্রæত এই অন্যায় প্রক্রিয়া বন্ধের দাবী জানিয়ে আমরা এ বিষয়ে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দিয়েছি। 

প্রতারিত হওয়া হাফিজুর রহমান জানান-পরিচ্ছন্নকর্মী পদে চাকুরী আশ্বাসের প্রতিশ্রæতি দিয়ে আমার নিকট এক বছর আগে ১লাখ টাকা প্রধান শিক্ষক আব্দুছ ছোবহান নিয়েছেন। অন্যজনের নিকট বেশী রফাদফা হওয়ায় সেই টাকা লিয়াকত হোসেন লিটনের মাধ্যমে ফেরত দিয়েছেন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমন কর্মকান্ডের প্রতিবাদে,বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগকারী,সাবেক ইউপি সদস্য আবু বক্কর বলেন- বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো সরকারের দিক নির্দেশনা মোতাবেক ম্যানেজিং কমিটির দ্বারা পরিচালিত হলেও রুকনাই উচ্চ বিদ্যালয়টি ব্যক্তিগত সম্পদে পরিনত হয়েছে। 

সরকারের কোন নিয়ম নীতি তোয়াক্কা না করে, মেধাবী শিক্ষার্থীদের সুযোগ না দিয়ে নিজেদের মতগড়া নিয়োগ দেওয়ায় আমি এর প্রতিবাদে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেছি।

বিদ্যুৎসাহী সদস্য শাহজাহান আহম্মেদ বলেন- আমরা প্রতিষ্ঠানের কল্যানের জন্য জায়গা দিয়েছি। অর্থের উপার্যনের জন্য নয়। এ বিষয়ে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ গিয়েছে শুনেছি। আমরা গর্ভনিং বডি সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সার্কুলারের মাধ্যমে স্বচ্ছভাবে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

এ ব্যাপারে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জানান- এ সংক্রান্ত একটি অভিযোগ পেয়েছি। তবে এখন পর্যন্ত কোন ডিজি প্রতিনিধি নিয়োগের আবেদন পাইনি।

 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।