ধসেই গেলো সেতুটি: যাতায়াত দুর্ভোগে দশ গ্রামের মানুষ

ধসেই গেলো সেতুটি যাতায়াত দুর্ভোগে দশ গ্রামের মানুষ



কাজিপুর প্রতিনিধি: ধস ঠেকানোর সব চেষ্টা ব্যর্থ করে ধসেই গেলো সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার মনসুননগর ইউনিয়নের মাজনাবাড়ি সড়কের সেতুটি। 

গত বুধবার ওই সেতুটির পাশে ধস নামে। তিনদিন যাবৎ ধসে যাওয়া স্থানে জিওব্যাগ ও বাঁশের বেড়া তৈরি করে সেতুটি রক্ষার চেষ্টা করা হচ্ছিল। কিন্তু যমুনার পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে ক্রমান্বয়ে ঝুঁকিপ‚র্ণ হয়ে পড়ে ওই সেতুটি। 

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সেতুটির ধস নামা অংশের মুখ খুলে যায়। এতে করে সেতুর অপর পাশের মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। 

শুক্রবার সকালে গিয়ে দেখা গেছে সেতুটির পাশের প্রায় দেড়শ মিটার রাস্তাসহ সেতুর গাইডওয়াল পানিতে ভেসে গেছে। একপাশে হেলে পড়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। 

ধসে যাওয়া স্থান দিয়ে প্রচন্ড বেগে পানি প্রবেশ করছে অপর পাশে। গুরুত্বপ‚র্ণ এই রাস্তটি ধসে যাওয়ায বিপাকে পড়েছে মাজনাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীসহ প্রায় দশ গ্রামের মানুষ। 

এলাজিইডির নির্মিত ওই সেতুটি ধসে যাওয়ায় মনসুরনগর থেকে চরগিরিশ ইউনিয়নের স্থলপথের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। 

উত্তর কুমারিয়াবাড়ী,দক্ষিণ কুমারিয়া বাড়ী, শালগ্রামসহ দশ গ্রামের মানুষের চলাচলে দেখা দিয়েছে দুর্ভোগ। 

কাজিপুর উপজেলা প্রকৌশলী (চলতি দায়িত্বে) বাবলু মিয়া জানান, এই মুহ‚র্তে আর কিছুই করার নেই। পানি নেমে গেলে সেতুটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। 

এদিকে একই রাস্তায় ধসে যাওয়া সেতু হতে এক কিলোমিটার প‚র্ব দিকে একই রাস্তায় রসুলের বাড়ী সংলগ্ন পাকা রাস্তায় আরও একটি সেতুর দুই পাশে ধসে গিয়েছে। 

সেতুর পাশের রসুল মিয়ার বাড়িটি বর্তমানে ঝুঁকিপ‚র্ণ অবস্থায় আছে।

  


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0 comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।