উল্লাপাড়ায় কেয়া হসপিটাল কর্মচারির জেল ও মালিকের জরিমানা

উল্লাপাড়ায় কেয়া হসপিটাল কর্মচারির জেল ও মালিকের জরিমানা



উল্লাপাড়া প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া পৌর শহরের শ্যামলীপাড়া বাসষ্ট্যান্ডে অবস্থিত কেয়া হসপিটাল এন্ড কনসালটেশন সেন্টারের নানাবিধ অনিয়মের কারণে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। 

রবিবার রাত ১০ টার দিকে উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট দেওয়ান মওদুদ আহমেদ এর নেতৃত্বে ওই ক্লিনিকে র‌্যাব ও পুলিশ যৌথ অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় মালিককে এক লক্ষ টাকা জরিমানা ও এক কর্মচারিকে দুই মাসের জেল প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালত।

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট দেওয়ান মওদুদ আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, হাসপাতালে অভিযান পরিচালনা করার সময় ডিউটিরত কোন ডাক্তার ছিলেন না। 

ডাক্তারী সনদ বিহীন খাইরুল আলম (২৯) নামের এক কর্মচারি হাসপাতালে রোগীকে চিকিৎসা প্রদান, চিকিৎসা পত্রে বিভিন্ন ধরনের মেডিসিন প্রয়োগ, রোগীকে টেষ্ট প্রদান, ইনজেকশন পুশ ও বিনা সনদে আলট্রা সনোগ্রাম করার অপরাধে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৫২ ধারার অপরাধে মালিককে জরিমানা ও কর্মচারিকে সাজা প্রদান করা হয়। 

এ সময় কেয়া হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহাদত হোসেন মাহবুব (৩৬) কে ১ (এক) লাখ টাকা জরিমানা ও কর্মচারি খাইরুল আলমকে ২ (দুই) মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালত। 

উল্লাপাড়া পৌরসভার মেয়র এস. এম. নজরুল ইসলাম বলেন, চিকিৎসার নামে অপচিকিৎসা প্রদান করায় দিন দিন মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়ছে। 

ক্লিনিকের অসাধু ব্যবসায়ীরা হাতিয়ে নিচ্ছে সমাজের সাধারন মানুষের টাকা-পয়সা। এ ধরনের প্রতারক ও ঠকবাজীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করা প্রয়োজন।

  


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।