চির বিদায় নিলেন জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম

চির বিদায় নিলেন জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম



সেবা ডেস্ক: না ফেরার দেশে চলে গেলেন বাংলাদেশের জাতীয় অধ্যাপক ডঃ মোঃ রফিকুল ইসলাম। একুশে পদক ও স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত বাংলা একাডেমির সাবেক সভাপতি সবার শ্রদ্ধেয় রফিকুল ইসলাম একজন মৌলিক গবেষক ছিলেন। 

ভাষা আন্দোলন ও মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী এই মানুষটি জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত জাতিকে সেবা দিয়েছেন, পালন করেছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন কমিটি'র সভাপতির দায়িত্ব। 

বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার একজন শিক্ষক- অভিভাবক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। প্রয়াত ড. রফিকুল ইসলাম একটি প্রজন্মের প্রতিনিধি ছিলেন। এই মৃত্যু জাতির জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি।

মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। হাসপাতালের ডিউটি অফিসার ডা. অভিজিৎ গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত ৭ অক্টোবর পেটের ব্যথা নিয়ে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) ভর্তি হন জাতীয় এই অধ্যাপক। পরে ফুসফুসে পানি ধরা পড়ে তার। তখন থেকে তিনি সেখানে বক্ষব্যাধি (রেসপিরেটরি মেডিসিন) বিভাগের অধ্যাপক ডা. এ কে এম মোশাররফ হোসেনের অধীনে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

উন্নত চিকিৎসার জন্য পরিবারের সদস্যরা রফিকুল ইসলামকে ভারতে নিয়ে যেতে চাইলেও তিনি রাজি হননি। পরে তাকে রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিশিষ্ট নজরুল গবেষক অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রথম নজরুল অধ্যাপক এবং নজরুল গবেষণা কেন্দ্রের প্রথম পরিচালক।

ভাষা আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেছিলেন তিনি। শহিদ বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে প্রথম গ্রন্থ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষের ইতিহাসের প্রথম গ্রন্থসহ প্রায় ৩০টি বই লেখা এবং সম্পাদনা করেছেন রফিকুল ইসলাম।

অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম একুশে পুরস্কার, স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার ও বাংলা একাডেমি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। এছাড়া এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে ঘোষিত প্রথম আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা পদকেও ভূষিত হয়েছিলেন তিনি।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি রফিকুল ইসলাম বাংলা একাডেমির সভাপতির দায়িত্বেও ছিলেন। 

২০১৮ সালে সরকার তাকে জাতীয় অধ্যাপক ঘোষণা করে। 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

,

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।