ট্রেনযাত্রীদের যোগাযোগ উন্নত ও আধুনিক করতে কাজ করছে সরকার

ট্রেনযাত্রীদের যোগাযোগ উন্নত ও আধুনিক করতে কাজ করছে সরকার



উল্লাপাড়া প্রতিনিধি: বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টায় রেলপথ মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন প্রধান অতিথি হিসেবে ঈশ্বরদী-ঢাকা রেলপথে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া রেলওয়ে স্টেশনের আধুনিকায়ন ও উন্নয়ন কর্মকান্ডের উদ্বোধন করেন। 

অনুষ্ঠানে উল্লাপাড়ার সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। বাংলাদেশ রেলওয়ে অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডি এন মজুদার এতে সভাপত্বি করেন।  

রেলপথ মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন এমপি তার বক্তব্যে বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল এদেশের গরীব দুখী মেহনতি মানুষের মুখে হাসি ফোটানো। 

স্বাধীনতার পর তিনি পাকিস্তানের কারাগার থেকে দেশে ফিরে যুদ্ধ বিধ্বস্থ দেশ পূর্ণগঠনের কাজ করছিলেন। 

কিন্তু দেশের স্বাধীনতা বিরোধী গোষ্ঠী বঙ্গবন্ধুকে সেই কাজ এগিয়ে নিতে দেয়নি। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে এই গোষ্ঠী সপরিবারে হত্যা করে। 

এতে দেশ পিছিয়ে যায় সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড। বিশেষতঃ এদেশের রেল বিভাগ হয়ে পড়ে সবচেয়ে বেশি অবহেলিত। 

মন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা প্রথম ক্ষমতায় এসে ধ্বংসপ্রায় রেল বিভাগকে নতুন করে ছাঙ্গা করেন। 

তিনি রেলপথকে আধুনিক ও এর উন্নয়নে বহুমুখী কর্ম পরিকল্পনা প্রণয়ন করেন। এই পরিকল্পনার ধারাবাহিকতায় আজ উল্লাপাড়া রেলওয়ে স্টেশনের আধুনিকায়ন ও উন্নয়নের কর্মযজ্ঞ শুরু হয়েছে। 

নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, ঈশ্বরদী-ঢাকা রেলপথে এখন ডাবল লাইন চালু করার কাজ শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যমুনা নদীতে বর্তমান বঙ্গবন্ধু সেতুর পাশে শুধু ট্রেন যাতায়াতের জন্য একটি পৃথক সেতুন নির্মাণ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছেন। 

রেলমন্ত্রী তার বক্তব্যে আরো বলেন, বাংলাদেশে রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফর্মগুলো ছিল খুবই নিচু। এতে ট্রেন থেকে যাত্রীদের ওঠানামায় অনেক অসুবিধা হতো। 

স্টেশনগুলোতে শিশু বাচ্চাদের মায়ের দুধ পান করার জন্য কোন ব্যবস্থা ছিল না। ফ্লাটফর্মগুলোও ছিল ট্রেনের তুলনায় অনেক ছোট। 

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় আমরা এখন সরকারের রেভিনিউ খাতের অর্থ থেকে প্রতিটি স্টেশনের ফ্লাটফর্ম উঁচুকরণ, সম্প্রসারন, শেড নির্মাণ এবং শিশু বাচ্চাদের দুধ খাওয়ানোর জন্য ফিডিং সেন্টার নির্মাণের ব্যবস্থা নিয়েছি। 

তিনি উল্লাপাড়ার সংসদ সদস্য তানভীর ইমামের আবেদনের প্রেক্ষিতে উল্লাপাড়া রেলওয়ে স্টেশনে রংপুর এক্সপ্রেস ও নীলফামারী এক্সপ্রেসসহ কয়েকটি আন্তঃনগর এক্সপ্রেসের যাত্রা বিরতির ব্যবস্থা নেবার ঘোষনা দেন। 

একই সঙ্গে উল্লাপাড়া স্টেশনে আরো একটি আইল্যান্ড ফ্লাটফর্ম নির্মাণ করা হবে বলেও উল্লেখ করেন রেলমন্ত্রী। 

এসময় বাংলাদেশ রেলওয়ের সচিব মোঃ সেলিম রেজা, পশ্চিম রেলওয়ের মহা ব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহ, প্রধান প্রকৌশলী মনিরুল ইসলাম, পাকশী রেলওয়ে বিভাগের রেলওয়ে ম্যানেজার শাহিদুল ইসলাম, পাকশী রেলওয়ের বিভাগীয় প্রকৌশলী-২ আব্দুর রহিমসহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।