অপরাধ নিয়ন্ত্রণে চট্টগ্রাম নগরে স্থাপন করা হচ্ছে ৭’শ সিসিক্যামেরা

অপরাধ নিয়ন্ত্রণে চট্টগ্রাম নগরে স্থাপন করা হচ্ছে ৭’শ সিসিক্যামেরা



সেবা ডেস্ক:  অপরাধ নিয়ন্ত্রণ এবং জানমালে’র সু’রক্ষা দিতে পুরো চট্টগ্রাম নগরীকে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা’র (সিসি ক্যামেরা) আওতায় আনছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) 

সার্বক্ষণিক নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা’র আওতায় আনা’র জন্য ৭০০টি সিসি ক্যামেরা নির্বাচন করা হয়েছে, যা’র মধ্যে ৪১১টি’র সংযোগ ইতোমধ্যেই দেয়া হয়েছে। অবশিষ্ট ক্যামেরাও শীঘ্রই সংযোগ দেয়া হবে। 

সিএমপি’র উদ্যোগে’র নামআইস অব সিএমপিঅর্থাৎ পুলিশে’র চোখ। এই উদ্যোগে’র ফলে মহানগরী’র গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলো এবং অলিগলিও পুলিশি নজ’রদারি’র আওতায় আসবে।

বর্তমানে ৭০টি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বসানো হয়েছে এই ক্যামেরা। সিসি ক্যামেরা’র আওতায় সার্বক্ষণিক ভিডিও মনিটরিংয়ে’র ব্যবস্থা থাকায় ধরা পড়ে যাবে আসামি’র ছবিসহ ভিডিও, যা অপরাধ দমন ছাড়াও অপরাধীদে’র গতিবিধিও নজ’রদারিতে রাখবে। 

পুলিশে’র ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বলছেন, পুরো বন্দ’রনগরী সিসি ক্যামেরা’র আওতায় এসে গেলে অপরাধ প্রায় শূন্যে’র কোঠায় নামিয়ে আনা খুবই সহজ হবে। 

এমনকি দিনে-রাতে যে কোন সময় কোন অপরাধ সংঘটিত হলে তা’র ‘রহস্য উদঘাটন দ্রুতই সম্ভব হবে। এ’র ফলে ভুক্তভোগীরা তাদে’র সমস্যা’র সমাধান পাবে। 

সন্ত্রাসী দুর্ধর্ষ অপরাধীদে’রও বিচারে’র আওতায় আনতে সহজ হবে। সিএমপি’র একটি ডিজিটাল কন্ট্রোল রুম স্থাপন করে এটি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

এই কার্যক্রমটি বৃহস্পতিবা’র উদ্বোধন করেন সিএমপি কমিশনা’র সালেহ মোহাম্মদ তানভী’র। তিনি জানান, এই উদ্যোগে’র কা’রণে অপরাধীদে’র অপরাধ প্রবণতা কমে যাবে, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ আসামি শনাক্তক’রণ সহজত’র হবে। 

ভবিষ্যতে কার্যক্রমে’র আওতায় সমগ্র মহানগরী এলাকাকে সিএমপি’র নিজস্ব ক্যামেরা’র অধীনে নিয়ে আসা হবে। অপরাধ নিয়ন্ত্রণে স্থাপন করা হবে ফেস ডিটেকশন নাম্বা’র রিডেবল ক্যামেরা। তৈরি করা হবে ভিডিওভিত্তিক ক্রাইম ম্যাপ। 

সম্ভাব্য অপরাধপ্রবণ এলাকা চিহ্নিত করে সকল এলাকায় বিশেষ আইপি ক্যামেরা’র সঙ্গে ডিউটি’রত পেট্রোল গাড়ি’র সংযোগ স্থাপনে’র মাধ্যমে অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

সিএমপি সূত্রে জানা গেছে, ৭০০টি ক্যামেরা’র মধ্যে গুরুত্ব বিবেচনায় ৪১১টি ক্যামেরা’র সংযোগ দেয়া হয় সিএমপি’র কন্ট্রোল রুমে’র সঙ্গে এবং অবশিষ্ট ক্যামেরা প্রতিদিন ২৪ ঘণ্টা অনস্ক্রিন সচল থাকে। 

সব ক্যামেরা’র ধা’রণকৃত ফুটেজ ১৫ দিন পর্যন্ত হার্ডডিস্কে সং’রক্ষিত থাকবে। নগরী’র গুরুত্বপূর্ণ স্থান অক্সিজেন, মুরাদপু’র, জিইসি, ষোলশহ’র নম্ব’র গেট, বহদ্দা’রহাট, পতেঙ্গাসহ প্রায় ৭০টি স্থানে এই ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে।

সিএমপি’র অতিরিক্ত উপ-কমিশনা’র (জনসংযোগ) আরাফাতুল ইসলাম জানান, ভবিষ্যতে এই কার্যক্রম পুরো নগরীতে ছড়িয়ে দেয়া হবে। 

এই লক্ষ্যে সিএমপি কমিশনা’র মহোদয়ে’র নির্দেশে কাজ চলছে। প্রাথমিকভাবে ৪১১টি ক্যামেরা’র সংযোগ দেয়া হলেও খুব শীঘ্রই অবশিষ্ট ক্যামেরাওগুলোও সিএমপি’র কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষে সংযোগ দেয়া হবে। 

ছাড়া বর্তমানে দুইজন অপারেট’র এই সকল ক্যামেরা’র কার্যক্রম মনিটরিং ক’রছে। ২৪ ঘণ্টা প্রতিদিনই এই সিসি ক্যামেরা মনিটরিং এ’র আওতায় থাকছে।

কোতোয়ালি জোনে’র সহকারী কমিশনা’র মুজাহিদুল ইসলাম জানান, সব ক্যামেরা যদি অচল হয়ে যায় কিংবা ক্যামেরা ডাউন হয় তাহলে তাৎক্ষণিকভাবে সচল করা’র জন্য মাঠ পর্যায়ে টিম আছে। 

একটি টেকনিক্যাল টিম মাঠপর্যায়ে থাকছে, যারা সকল ক্যামেরা’র কার্যক্রম সচল রাখা’র জন্য সব সময় সক্রিয় থাকবেন। এ’র ফলে কোন অপরাধী সিসি ক্যামেরা’র আওতা’র বাইরে যেতে পা’রবে না।

হ্যালো সিএমপি এ্যাপস এদিকে নগ’রবাসী’র সুবিধার্থে সিএমপি’র ট্রাফিক বিভাগে’র উদ্যোগে চালু করা হয়েছেবাসে’র ন্যায্য ভাড়াকার্যক্রম। এই উদ্যোগে’র আওতায় সিএমপি’র নিজস্বহ্যালো সিএমপিএ্যাপসে নগরী’র সকল রুটে’র ভাড়া’র তালিকা সংযোজন করা হয়েছে। 

নগ’রবাসী তাদে’র গন্তব্যে’র নির্ধারিত ভাড়া সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পা’রবে। পাশাপাশি বাসে’র চালক সহকারী ভাড়া আদায়ে কোন ধ’রনে’র অনিয়ম কিংবা হয়রানি ক’রলে তাৎক্ষণিক ৯৯৯ কিংবা সিএমপি’র কন্ট্রোল নম্ব’র ৩০৩৫২/৬৩৯০২২/ ৬৩০৩৭৫ অভিযোগ জানালে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।