বিষমুক্ত সবজি চাষে আগ্রহ বাড়ছে সাদুল্যাপুরে

বিষমুক্ত সবজি চাষে আগ্রহ বাড়ছে সাদুল্যাপুরে



সেবা ডেস্ক: গাইবান্ধা’র সাদুল্যাপু’র উপজেলা’র হাটবাজারে শীতে’র সবজি’র আশানুরূপ দাম পেয়ে খুশি সবজিচাষিরা। এসব সবজি’র মধ্যে যেগুলো বিষমুক্ত উপায়ে চাষ করা হয়েছে সেগুলো’র চাহিদা সবচেয়ে বেশি।

উপজেলা’র বিভিন্ন বাজা’র ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি বেগুন বিক্রি হচ্ছে ২৫ টাকায়। এলাকাভেদে কোনো কোনো বাজারে কেজিতে দুই থেকে তিন টাকা কমবেশি হচ্ছে। বিগত বছ’রগুলোতে এই সময়ে সাধা’রণত শীতে’র সবজি উৎপাদন বেশি থাকায় বাজা’রমূল্য কম থাকত। 

কিন্তু এবা’র গ্রামে’র বাজারেও বেশ উচ্চমূল্যে বিক্রি হচ্ছে শীতে’র সবজি। এতে আর্থিকভাবে বেশি লাভবান হচ্ছেন কৃষক। সুন্দ’র আবহাওয়ায় এবা’র শীতে’র সবজি’র ভালো ফলন পেয়েছেন কৃষকরা। 

এ’র মধ্যে ৮২৩ হেক্ট’র জমিতে বিষমুক্ত উপায়ে সবজি চাষ করে বাড়তি মুনাফা পাচ্ছেন কৃষকরা। বাজারে বিষমুক্ত সবজি’র চাহিদা বেশি থাকায় অনেক কৃষক বিষ ছাড়াই সবজি চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন।

সাদুল্যাপু’র বাজারে’র সবজি বিক্রেতা মুন্না সাহা জানান, তা’র ব্যবসায়িক জীবনে এক যুগে’র মধ্যে শীতকালে সবজি’র এত উচ্চমূল্য কখনো দেখেননি।

গতকাল বৃহস্পতিবা’র সাদুল্যাপু’র বাজা’র ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি বেগুন ২৫ টাকায়, শিম ৩৫ থেকে ৪০, ব’রবটি ৪০, ক’রলা ৪০, ফুলকপি ২৫, বাঁধাকপি ২০, টমেটো ১২০, গাজ’র ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। ছাড়া মুলা’র কেজি ২০, শসা ৩০, পেঁপে ৩০ টাকা লাউ প্রতি পিস বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৩০ টাকায়।

কৃষি সম্প্রসা’রণ কর্মকর্তা মাহবুবুল আলম বসুনিয়া জানান, সাদুল্যাপু’র উপজেলায় এবা’র এক হাজা’র ৬৫০ হেক্ট’র জমিতে বিভিন্ন প্রজাতি’র

শীতে’র সবজি চাষ করা হয়েছে। এ’র মধ্যে বিষমুক্ত উপায়ে সবজি চাষ করা হয়েছে ৮২৩ হেক্ট’র জমিতে। এখান থেকে উৎপাদন হবে প্রায় ৪৭ হাজা’র মেট্রিক টন সবজি।

স্থানীয় কয়েকজন চাষি জানান, আবহাওয়া ভালো থাকায় তারা আশানুরূপ ফলন পাচ্ছেন। আ’র বাজারে এবা’র শীতকালীন সবজি’র উচ্চমূল্য পেয়ে কৃষকরা আর্থিকভাবে বেশ উপকৃত হচ্ছেন। 

এমন বাজা’রমূল্য পেলে কৃষকরা আ’রও মনোযোগী হবেন কৃষিতে। তাতে বাড়বে সবজি’র উৎপাদন। তবে বাজারে বিষমুক্ত সবজি’র চাহিদাই বেশি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সচেতন ক্রেতারা বাজারে বিষমুক্ত সবজিই খোঁজেন।

উপজেলা’র তীলকপাড়া গ্রামে’র কৃষক জাহিদুল ইসলাম জানান, সবজি’র বাজা’রমূল্য পেলে কৃষকরা অনেক বেশি উপকৃত হবেন। এতে কৃষকরা আ’রও বেশি পরিমাণ জমিতে সবজি চাষে আগ্রহী হবেন। 

তবে আগামীতে বেশি পরিমাণ জমিতে বিষমুক্ত উপায়ে সবজি চাষ করা হবে। কা’রণ বাজারে বিক্রি ক’রতে গেলে বিষমুক্ত সবজিই সবা’র আগে বিক্রি হয়।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা খাজানু’র ‘রহমান বলেন, কৃষকদে’র ক্ষেতে’র শীতকালীন সবজি কেবলমাত্র ফলন দেওয়া শুরু হয়েছে। সামনে আ’রও বেশি সবজি উৎপাদন হবে। 

কৃষকরা এখন যে হারে সবজি’র মূল্য পাচ্ছেন, সে অনুযায়ী প’রবর্তী সময়ে এই হারে মূল্য পেলে আ’রও বেশি লাভবান হবেন। 

তবে এবা’র আগাম সবজি’র সবচেয়ে উচ্চমূল্য পাওয়ায় কৃষকরা বেশি লাভবান হচ্ছেন। এই ধারা অব্যাহত থাকলে কৃষিক্ষেত্রে একটি বড় ধ’রনে’র পরিবর্তন আসবে। এ’র সঙ্গে বিষমুক্ত সবজি চাষ আ’রও বাড়বে। 


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।